তীমথিয়ের প্রতি প্রথম চিঠি ৬:১-২১

  • দাসেরা যেন তাদের প্রভুদের সমাদর করে (১, ২)

  • মিথ্যা শিক্ষকেরা এবং টাকাপয়সার প্রতি ভালোবাসা (৩-১০)

  • ঈশ্বরের লোকের প্রতি নির্দেশনা (১১-১৬)

  • উত্তম কাজে উপচে পড়ো (১৭-১৯)

  • তোমাকে আস্থা সহকারে যা দেওয়া হয়েছে, তা রক্ষা করো (২০, ২১)

 যারা দাস,* তারা যেন সবসময় নিজ নিজ প্রভুদের পূর্ণ সমাদর পাওয়ার যোগ্য বলে মনে করে, যাতে কেউ ঈশ্বরের নাম এবং তাঁর শিক্ষার নিন্দা করতে না পারে। ২  আর যে-দাসেরা খ্রিস্টান প্রভুদের অধীনে কাজ করে, তারা যেন সেই প্রভুদের অসম্মান না করে, কারণ তারা তাদের বিশ্বাসী ভাই। বরং, সেই দাসেরা যেন আরও ইচ্ছুক মনে সেবা করে, কারণ যারা তাদের উত্তম সেবা থেকে উপকার লাভ করছে, তারা তাদের প্রিয় খ্রিস্টান ভাই। তুমি সবসময় এইসমস্ত বিষয় শিক্ষা দাও এবং এগুলো পালন করার জন্য উৎসাহ দাও। ৩  কেউ যদি মিথ্যা শিক্ষা ছড়িয়ে দেয় এবং আমাদের প্রভু যিশু খ্রিস্টের কাছ থেকে পাওয়া উপকারজনক শিক্ষার সঙ্গে কিংবা ঈশ্বরের প্রতি ভক্তির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ শিক্ষার সঙ্গে একমত না হয়, ৪  তা হলে সে গর্বে অন্ধ হয়ে গিয়েছে এবং সে কিছুই বোঝে না। তর্কবিতর্ক করা এবং অনর্থক কথা নিয়ে ঝগড়া করাই তার ধ্যানজ্ঞান।* এইসমস্ত বিষয়ের পরিণাম হল, ঈর্ষা, বিবাদ, অপবাদ,* ভুল সন্দেহ ৫  আর সেই লোকদের মধ্যে ছোটোখাটো বিষয় নিয়ে অনবরত তর্কবিতর্ক, যাদের মন কলুষিত এবং যারা আর সত্য বোঝে না। এইরকম লোকেরা ঈশ্বরের প্রতি ভক্তি দেখানোকে ব্যক্তিগত সুযোগসুবিধা লাভ করার এক উপায় বলে মনে করে। ৬  এটা সত্যি যে, ঈশ্বরের প্রতি ভক্তি দেখানোর সঙ্গে যদি সন্তুষ্টি যুক্ত থাকে, তা হলে এই ভক্তি মহালাভের এক উপায়। ৭  কারণ আমরা জগতে কিছুই সঙ্গে করে নিয়ে আসিনি আর কোনো কিছুই সঙ্গে করে নিয়ে যেতে পারব না। ৮  তাই, খাদ্য ও বস্ত্র* পেলে আমরা তাতেই সন্তুষ্ট থাকব। ৯  কিন্তু, যারা যেকোনো মূল্যে ধনী হতে চায়, তারা প্রলোভনে ও ফাঁদে পড়ে এবং এমন মূর্খতাপূর্ণ ও ক্ষতিকর আকাঙ্ক্ষার কাছে নতিস্বীকার করে, যেগুলো মানুষকে ধ্বংস ও বিনাশের দিকে নিয়ে যায়। ১০  কারণ টাকাপয়সার প্রতি ভালোবাসা সমস্ত মন্দতার এক মূল আর এই ভালোবাসার পিছনে ছোটার কারণে অনেকে বিশ্বাস থেকে সরে পড়েছে এবং নিজেদের উপর অনেক দুঃখ ডেকে এনেছে। ১১  কিন্তু, হে ঈশ্বরের লোক, তুমি এইসমস্ত বিষয় থেকে পালিয়ে যাও। আর সদ্‌গুণ, ঈশ্বরের প্রতি ভক্তি, বিশ্বাস, প্রেম, ধৈর্য ও মৃদুতা গড়ে তোলার প্রচেষ্টা করো। ১২  বিশ্বাসের জন্য প্রাণপণ লড়াই করো; সেই অনন্তজীবন দৃঢ়ভাবে ধরে রাখো, যেটার জন্য তোমাকে আহ্বান করা হয়েছে এবং যে-বিষয়ে তুমি অনেকের সামনে উত্তম সাক্ষ্য দিয়েছ। ১৩  যিনি সমস্ত কিছু বাঁচিয়ে রেখেছেন, সেই ঈশ্বরের সামনে এবং যিনি পন্তীয় পীলাতের সামনে একজন সাক্ষি হিসেবে উত্তম সাক্ষ্য দিয়েছেন, সেই খ্রিস্ট যিশুর সামনে আমি তোমাকে এই আদেশ দিচ্ছি, ১৪  আমাদের প্রভু যিশু খ্রিস্ট প্রকাশিত না হওয়া পর্যন্ত তুমি নিখুঁতভাবে আজ্ঞা পালন করো, যেন কেউ তোমার নিন্দা করতে না পারে। ১৫  তিনি সেই সুখী এবং একমাত্র শক্তিমান সম্রাট, যিনি নিরূপিত সময়ে প্রকাশিত হবেন। তিনিই রাজাদের রাজা এবং প্রভুদের প্রভু। ১৬  তাদের মধ্যে একমাত্র তিনিই অমর জীবনের অধিকারী, যিনি এমন উজ্জ্বল ও গৌরবময় স্থানে বাস করেন, যেখানে কেউ যেতে পারে না এবং যাঁকে কেউ কখনো দেখেনি এবং দেখতেও পারে না। সমাদর এবং অনন্ত পরাক্রম তাঁরই থাকুক। আমেন। ১৭  বর্তমান বিধিব্যবস্থায়* যারা ধনী, তাদের এই নির্দেশ* দাও, যেন তারা উদ্ধত* না হয় এবং নশ্বর ধনের উপর নির্ভর না করে বরং সেই ঈশ্বরের উপর নির্ভর করে, যিনি আমাদের উপভোগের জন্য সমস্ত কিছু প্রচুর পরিমাণে জুগিয়ে থাকেন। ১৮  তাদের বলো, যেন তারা ভালো কাজ করে, উত্তম কাজে উপচে পড়ে, উদার হয় এবং নিজের যা আছে, তা অন্যের সঙ্গে ভাগ করে নেয়। ১৯  এটা করার মাধ্যমে তারা এক নিরাপদ ভবি­ষ্যতের জন্য ঈশ্বরের কাছ থেকে ধন সঞ্চয় করবে, যাতে তারা প্রকৃত জীবন দৃঢ়ভাবে ধরে রাখতে পারে। ২০  হে তীমথিয়, তোমাকে আস্থা সহকারে যা দেওয়া হয়েছে, তা রক্ষা করো, ঈশ্বরের নিন্দা নিয়ে আসে এমন নিরর্থক কথাবার্তা এবং মিথ্যা “জ্ঞানের” বিভ্রান্তিকর ধারণা থেকে দূরে থাকো। ২১  এই ধরনের জ্ঞান অনুসরণ করার মাধ্যমে কেউ কেউ বিশ্বাস থেকে সরে গিয়েছে। ঈশ্বরের মহাদয়া তোমাদের সঙ্গে থাকুক।

পাদটীকাগুলো

বা “যারা দাসত্বের জোয়ালে রয়েছে।”
বা “তার কাছে আগ্রহজনক বিষয়, যা কিনা উপকারজনক নয়।”
বা “নিন্দামূলক কথা।”
বা “আশ্রয়।” আক্ষ., “আচ্ছাদন।”
বা “যুগে।” শব্দকোষ দেখুন।
বা “আদেশ।”
বা “উচ্চমনা।”