সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

ঈশ্বরের কথা শুনুন এবং চিরকাল বেঁচে থাকুন

 খণ্ড ৩

পরমদেশে জীবন কেমন ছিল?

পরমদেশে জীবন কেমন ছিল?

যিহোবা আদম ও হবাকে অনেক উত্তম জিনিস দিয়েছিলেন। আদিপুস্তক ১:২৮

যিহোবা প্রথম নারী হবাকে নির্মাণ করেছিলেন এবং তাকে আদমের স্ত্রী হওয়ার জন্য দিয়েছিলেন।—আদিপুস্তক ২:২১, ২২.

যিহোবা তাদেরকে কোনোরকম খুঁত ছাড়াই, সিদ্ধ মন ও দেহ দিয়ে সৃষ্টি করেছিলেন।

তাদের পরমদেশ গৃহ ছিল এদন উদ্যান—একটা নদী, ফলমূলের গাছপালা ও পশুপাখির দ্বারা পরিবেষ্টিত অত্যন্ত সুন্দর এক স্থান।

যিহোবা তাদের সঙ্গে কথা বলেছিলেন; তিনি তাদেরকে শিক্ষা দিয়েছিলেন। তারা যদি তাঁর কথা শুনত, তাহলে তারা পরমদেশ পৃথিবীতে চিরকাল বেঁচে থাকত।

 ঈশ্বর একটা গাছের ফল খেতে নিষেধ করেছিলেন। আদিপুস্তক ২:১৬, ১৭

একজন দূত ঈশ্বরের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছিল। সেই দুষ্ট দূত হল শয়তান দিয়াবল।

যিহোবা আদম ও হবাকে সেই উদ্যানের একটা ফলের গাছ দেখিয়ে বলেছিলেন যে, তারা যদি সেই গাছের ফল খায়, তাহলে তারা মারা যাবে।

শয়তান চায়নি যে, আদম ও হবা যিহোবার বাধ্য হোক। তাই সে হবাকে একথা বলার জন্য একটা সাপকে ব্যবহার করেছিল যে, সে যদি সেই গাছের ফল খায়, তাহলে সে মারা যাবে না বরং সে ঈশ্বরের মতো হবে। অবশ্য, তা মিথ্যা ছিল। —আদিপুস্তক ৩:১-৫.

আরও জানুন

ঈশ্বরের কাছ থেকে সুসমাচার!

পৃথিবীর জন্য ঈশ্বরের উদ্দেশ্য কী?

বাইবেল ব্যাখ্যা করে যে, কেন ঈশ্বর পৃথিবী সৃষ্টি করেছিলেন, কখন দুঃখকষ্ট শেষ হবে, ভবিষ্যতে পৃথিবী কেমন হবে আর কারা সেখানে বাস করবে।