সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

বাইবেল প্রকৃতপক্ষে কী শিক্ষা দেয়?

 পরিশিষ্ট

প্রভুর সান্ধ্যভোজ—যে-উদ্‌যাপন ঈশ্বরকে সম্মানিত করে

প্রভুর সান্ধ্যভোজ—যে-উদ্‌যাপন ঈশ্বরকে সম্মানিত করে

খ্রিস্টানদেরকে খ্রিস্টের মৃত্যুর স্মরণার্থ উদ্‌যাপন করার আদেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া, এই উদ্‌যাপনকে “প্রভুর ভোজ [“সান্ধ্যভোজ,” NW]” বলা হয়ে থাকে। (১ করিন্থীয় ১১:২০) এর সম্বন্ধে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বিষয়টা কী? এটা কখন ও কীভাবে উদ্‌যাপন করা উচিত?

যিশু খ্রিস্ট ৩৩ খ্রিস্টাব্দে যিহুদি নিস্তারপর্বের রাতে এই উদ্‌যাপন প্রবর্তন করেছিলেন। নিস্তারপর্ব এমন এক উদ্‌যাপন ছিল যা বছরে শুধু একবার, যিহুদি নিশান মাসের ১৪তম দিনে উদ্‌যাপন করা হতো। সেই তারিখটা বের করার জন্য যিহুদিরা স্পষ্টতই বসন্তকালের সেই দিনের জন্য অপেক্ষা করত, যে-দিনে প্রায় ১২ ঘন্টা দিন ও ১২ ঘন্টা রাত থাকত। এই দিনের কাছাকাছি সময়ে দৃষ্টিগোচর হওয়া প্রথম নতুন চাঁদ নিশান মাসের প্রথম দিনকে চিহ্নিত করত। ১৩ দিন পরে নিস্তারপর্ব শুরু হতো।

যিশু তাঁর প্রেরিতদের সঙ্গে নিস্তারপর্ব উদ্‌যাপন করেছিলেন, ঈষ্কোরিয়োতীয় যিহূদাকে বের করে দিয়েছিলেন এবং এরপর প্রভুর সান্ধ্যভোজ প্রবর্তন করেছিলেন। এই ভোজ যিহুদি নিস্তারপর্বের স্থলে হয়েছিল আর তাই, শুধুমাত্র বছরে একবারই উদ্‌যাপন করা উচিত।

মথির সুসমাচার জানায়: “যীশু রুটী লইয়া আশীর্ব্বাদপূর্ব্বক ভাঙ্গিলেন, এবং শিষ্যদিগকে দিলেন, আর কহিলেন, লও, ভোজন কর, ইহা আমার শরীর। পরে তিনি পানপাত্র লইয়া ধন্যবাদপূর্ব্বক  তাঁহাদিগকে দিয়া কহিলেন, তোমরা সকলে ইহা হইতে পান কর; কারণ ইহা আমার রক্ত, নূতন নিয়মের রক্ত, যাহা অনেকের জন্য, পাপমোচনের নিমিত্ত, পাতিত হয়।”—মথি ২৬:২৬-২৮.

কেউ কেউ মনে করে যে, যিশু রুটিকে তাঁর আক্ষরিক মাংসে ও দ্রাক্ষারসকে তাঁর রক্তে পরিণত করেছিলেন। কিন্তু, যিশুর মাংসিক দেহ তখনও অক্ষুণ্ণ ছিল, যখন তিনি এই রুটি উৎসর্গ করেছিলেন। যিশুর প্রেরিতরা কি সত্যিই তাঁর আক্ষরিক মাংস খাচ্ছিলেন ও তাঁর রক্ত পান করছিলেন? না, কারণ তা হলে সেটা নরমাংস ভোজন করা হতো আর ঈশ্বরের আইনকে লঙ্ঘন করা হতো। (আদিপুস্তক ৯:৩, ৪; লেবীয় পুস্তক ১৭:১০) লূক ২২:২০ পদ অনুসারে, যিশু বলেছিলেন: “এই পানপাত্র আমার রক্তে নূতন নিয়ম, যে রক্ত তোমাদের নিমিত্ত পাতিত হয়।” সেই পানপাত্রটা কি আক্ষরিকভাবে “নূতন নিয়ম” বা চুক্তি হয়ে উঠেছিল? সেটা অসম্ভব কারণ একটা চুক্তি হচ্ছে এক অঙ্গীকার, কোনো বস্তুগত জিনিস নয়।

তাই, রুটি ও দ্রাক্ষারস দুটোই কেবলমাত্র প্রতীক। রুটি যিশুর সিদ্ধ দেহকে চিত্রিত করে। যিশু নিস্তারপর্বের ভোজ থেকে অবশিষ্ট একটা রুটি ব্যবহার করেছিলেন। রুটিটা কোনো তাড়ি বা ইস্ট ছাড়া তৈরি করা হয়েছিল। (যাত্রাপুস্তক ১২:৮) বাইবেল প্রায়ই তাড়িকে পাপ বা কলুষতার প্রতীক হিসেবে ব্যবহার করে। অতএব, রুটি সেই সিদ্ধ দেহকে প্রতিনিধিত্ব করে, যা যিশু বলি দিয়েছিলেন। এটা ছিল পাপহীন।—মথি ১৬:১১, ১২; ১ করিন্থীয় ৫:৬, ৭; ১ পিতর ২:২২; ১ যোহন ২:১, ২.

লাল দ্রাক্ষারস যিশুর রক্তকে প্রতিনিধিত্ব করে। সেই রক্ত নতুন চুক্তিকে বৈধ করে তোলে। যিশু বলেছিলেন যে, তাঁর রক্ত “পাপমোচনের নিমিত্ত” পাতিত হয়েছিল। এভাবে মানুষেরা ঈশ্বরের চোখে শুচি হয়ে উঠতে পারে এবং যিহোবার সঙ্গে নতুন চুক্তিতে প্রবেশ করতে পারে। (ইব্রীয় ৯:১৪; ১০:১৬, ১৭) এই নিয়ম বা চুক্তি ১,৪৪,০০০ জন বিশ্বস্ত খ্রিস্টানের জন্য স্বর্গে যাওয়া সম্ভবপর করে। সেখানে তারা সমস্ত মানবজাতির আশীর্বাদের জন্য রাজা ও যাজক হিসেবে সেবা করবেন।—আদিপুস্তক ২২:১৮; যিরমিয় ৩১:৩১-৩৩; ১ পিতর ২:৯; প্রকাশিত বাক্য ৫:৯, ১০; ১৪:১-৩.

স্মরণার্থের এই প্রতীকগুলো কাদের গ্রহণ করা উচিত? যুক্তিযুক্তভাবেই, একমাত্র নতুন চুক্তির অন্তর্ভুক্ত ব্যক্তিদের—অর্থাৎ যাদের স্বর্গে যাওয়ার আশা রয়েছে তাদের—রুটি ও দ্রাক্ষারস গ্রহণ করা উচিত। ঈশ্বরের পবিত্র আত্মা এই ধরনের ব্যক্তিদের নিশ্চিত করে যে, তাদেরকে স্বর্গীয় রাজা হিসেবে বাছাই করা হয়েছে। (রোমীয় ৮:১৬) যিশুর সঙ্গে তারাও রাজ্য চুক্তিতে রয়েছেন।—লূক ২২:২৯.

 যাদের পরমদেশ পৃথিবীতে চিরকাল বেঁচে থাকার আশা রয়েছে, তাদের সম্বন্ধে কী বলা যায়? তারা যিশুর আদেশের বাধ্য হয় এবং প্রভুর সান্ধ্যভোজে উপস্থিত থাকে, কিন্তু তারা সেখানে সম্মানজনকভাবে উদ্‌যাপনকারী হিসেবে আসে, গ্রহণকারী ব্যক্তি হিসেবে নয়। বছরে একবার ১৪ নিশান সূর্যাস্তের পর, যিহোবার সাক্ষিরা প্রভুর সান্ধ্যভোজ উদ্‌যাপন করে থাকে। যদিও পৃথিবীব্যাপী মাত্র অল্প কিছু ব্যক্তি নিশ্চিত করে যে, তাদের স্বর্গীয় আশা রয়েছে কিন্তু এই উদ্‌যাপন সমস্ত খ্রিস্টানের জন্য মূল্যবান। এটা এমন এক সময়, যখন সকলে যিহোবা ঈশ্বর ও যিশু খ্রিস্টের সর্বশ্রেষ্ঠ প্রেম নিয়ে গভীরভাবে চিন্তা করতে পারে।—যোহন ৩:১৬.