সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

বাইবেল—এই বইয়ে কোন বার্তা রয়েছে?

 খণ্ড ১৬

মশীহের আগমন ঘটে

মশীহের আগমন ঘটে

যিহোবা নাসরতের যিশুকে দীর্ঘ প্রতিজ্ঞাত মশীহ হিসেবে শনাক্ত করেন

যিহোবা কি মশীহকে শনাক্ত করার জন্য লোকেদের সাহায্য করেছিলেন? হ্যাঁ, করেছিলেন। ঈশ্বর কী করেছিলেন, তা বিবেচনা করুন। সেই সময়টা ছিল ইব্রীয় শাস্ত্র লেখা সমাপ্ত হওয়ার প্রায় চার শতাব্দী পর। গালীলের উত্তরাঞ্চলে নাসরৎ নামক এক নগরে, মরিয়ম নামে একজন যুবতী সবচেয়ে অপ্রত্যাশিত এক সাক্ষাৎ লাভ করেছিলেন। গাব্রিয়েল নামে এক স্বর্গদূত তার সামনে আবির্ভূত হয়ে বলেছিলেন যে, যদিও তিনি একজন কুমারী কিন্তু তাকে গর্ভধারণ করে এক পুত্রসন্তান জন্ম দেওয়ার জন্য ঈশ্বর তাঁর সক্রিয় শক্তি অর্থাৎ তাঁর পবিত্র আত্মাকে ব্যবহার করতে যাচ্ছেন। এই পুত্রই হবেন সেই দীর্ঘ প্রতিজ্ঞাত রাজা, যিনি অনন্তকাল শাসন করবেন! এই সন্তান হবেন স্বয়ং ঈশ্বরের পুত্র, যাঁর জীবন ঈশ্বর স্বর্গ থেকে মরিয়মের গর্ভে স্থানান্তরিত করবেন।

মরিয়ম নম্রভাবে অতীব গুরুত্বপূর্ণ ও সম্মাননীয় সেই কার্যভার গ্রহণ করেছিলেন। যোষেফ নামে এক সূত্রধর, যিনি মরিয়মের ভাবী স্বামী, তার কাছে ঈশ্বর একজন স্বর্গদূতকে পাঠিয়ে মরিয়মের গর্ভবতী হওয়ার কারণ সম্বন্ধে আশ্বস্ত করার পর তিনি মরিয়মকে বিয়ে করেছিলেন। তবে সেই ভবিষ্যদ্‌বাণী সম্বন্ধে কী বলা যায়, যেটা বলেছিল যে, মশীহ বৈৎলেহমে জন্মগ্রহণ করবেন? (মীখা ৫:২) সেই ছোট্ট নগর প্রায় ১৪০ কিলোমিটার দূরে ছিল!

একজন রোমীয় শাসক আদেশ জারি করেছিলেন যে, লোকগণনা করা হবে। লোকেদেরকে তাদের নিজ নিজ নগরে গিয়ে নাম লেখাতে আদেশ দেওয়া হয়েছিল। মনে হয় যোষেফ ও মরিয়ম দুজনেই বৈৎলেহমের ছিল আর তাই যোষেফ তার গর্ভবতী স্ত্রীকে নিয়ে সেখানে গিয়েছিলেন। (লূক ২:৩) মরিয়ম একটা সাধারণ আস্তাবলে সন্তান প্রসব করেছিলেন, শিশুটিকে একটা যাবপাত্রে শুইয়ে রেখেছিলেন। এরপর ঈশ্বর এক স্বর্গদূতকে পাহাড়ের পার্শ্বে একদল মেষপালকের কাছে এই কথা বলার জন্য পাঠিয়েছিলেন যে, সবেমাত্র জন্মগ্রহণ করা শিশুটিই প্রতিজ্ঞাত মশীহ বা খ্রিস্ট।

পরে, অন্যেরাও সাক্ষ্য দিয়েছিল যে, যিশুই ছিলেন প্রতিজ্ঞাত মশীহ। ভাববাদী যিশাইয় ভবিষ্যদ্‌বাণী করেছিলেন যে, মশীহের অতীব গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য পথ প্রস্তুত করতে একজন ব্যক্তির উদয় হবে। (যিশাইয় ৪০:৩) সেই অগ্রদূত ছিলেন যোহন বাপ্তাইজক। তিনি যখন মনুষ্য যিশুকে দেখেছিলেন, তখন সবিস্ময়ে বলে উঠেছিলেন: “ঐ দেখ, ঈশ্বরের মেষশাবক, যিনি জগতের পাপভার লইয়া যান।” যোহনের কিছু শিষ্য সঙ্গেসঙ্গেই যিশুকে অনুসরণ করেছিল। তাদের মধ্যে একজন বলেছিলেন: “আমরা মশীহের দেখা পাইয়াছি।”—যোহন ১:২৯, ৩৬, ৪১.

আরও সাক্ষ্য দেওয়া হয়েছিল। যোহন যখন যিশুকে বাপ্তাইজিত করেছিলেন, তখন যিহোবা নিজে স্বর্গ থেকে কথা বলেছিলেন। পবিত্র আত্মার মাধ্যমে তিনি যিশুকে মশীহ হিসেবে নিযুক্ত করেছিলেন এবং বলেছিলেন: “ইনিই আমার প্রিয় পুত্ত্র, ইঁহাতেই আমি প্রীত।” (মথি ৩:১৬, ১৭) দীর্ঘ প্রতিজ্ঞাত মশীহের আগমন ঘটেছিল!

এটা কখন ঘটেছিল? সা.কা. ২৯ সালে, ঠিক যখন দানিয়েলের ভবিষ্যদ্‌বাণীকৃত ৪৮৩ বছর শেষ হয়েছিল। হ্যাঁ, এটা হল সেই অকাট্য প্রমাণের অংশ যে, যিশুই হলেন মশীহ বা খ্রিস্ট। তবে, পৃথিবীতে থাকাকালীন তিনি কোন বার্তা ঘোষণা করেছিলেন?

মথি ১ থেকে ৩ অধ্যায়; মার্ক ১ অধ্যায়; লূক ২ অধ্যায়; যোহন ১ অধ্যায়ের ওপর ভিত্তি করে।

আরও জানুন

ঈশ্বরের কাছ থেকে সুসমাচার!

যিশু খ্রিস্ট কে?

যিশু কেন মারা গিয়েছিলেন, মুক্তির মূল্য কী আর যিশু এখন কী করছেন, তা জানুন।

তাদের বিশ্বাস অনুকরণ করুন

মরিয়ম “হৃদয় মধ্যে আন্দোলন” করেছিলেন

বৈৎলেহমে মরিয়মের অভিজ্ঞতা যিহোবার প্রতিজ্ঞার প্রতি তার বিশ্বাসকে শক্তিশালী করেছিল।

তাদের বিশ্বাস অনুকরণ করুন

যোষেফ সুরক্ষা করেছিলেন, ভরণ-পোষণ জুগিয়েছিলেন, দায়িত্ব পালন করেছিলেন

কোন কোন উপায়ে যোষেফ তার পরিবারকে সুরক্ষা করেছিলেন? কেন তিনি মরিয়ম ও যিশুকে মিশরে নিয়ে গিয়েছিলেন?