সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

ঈশ্বরের কাছ থেকে সুসমাচার!

 পাঠ ১

সুসমাচারটা আসলে কী?

সুসমাচারটা আসলে কী?

১. ঈশ্বরের কাছ থেকে সুসমাচারটা আসলে কী?

ঈশ্বর চান যেন লোকেরা পৃথিবীতে জীবন উপভোগ করে। তিনি পৃথিবী এবং এতে বিদ্যমান সমস্তকিছু সৃষ্টি করেছেন কারণ তিনি মানবজাতিকে ভালোবাসেন। প্রত্যেক জায়গার লোকেদেরকে এক উত্তম ভবিষ্যৎ প্রদান করার জন্য শীঘ্র তিনি পদক্ষেপ নেবেন। তিনি মানবজাতিকে দুঃখকষ্টের কারণগুলো থেকে মুক্ত করবেন।—পড়ুন, যিরমিয় ২৯:১১.

কোনো সরকারই কখনো দৌরাত্ম্য, রোগব্যাধি অথবা মৃত্যু নির্মূল করতে সফল হয়নি। কিন্তু, একটা সুসমাচার রয়েছে। শীঘ্র, ঈশ্বর সমস্ত মানবসরকারের স্থলে তাঁর নিজ সরকার স্থাপন করবেন। এর প্রজারা শান্তি ও উত্তম স্বাস্থ্য উপভোগ করবে।—পড়ুন, যিশাইয় ২৫:৮; ৩৩:২৪; দানিয়েল ২:৪৪.

২. কেন সুসমাচার অত্যন্ত জরুরি?

একমাত্র সেই সময়ই দুঃখকষ্ট শেষ হবে, যখন ঈশ্বর পৃথিবী থেকে মন্দ লোকেদের দূর করবেন। (সফনিয় ২:৩) এটা কখন ঘটবে? ঈশ্বরের বাক্য এমন কিছু পরিস্থিতি সম্বন্ধে ভবিষ্যদ্‌বাণী করে, যেগুলো এখন মানবজাতির জন্য হুমকি স্বরূপ। সাম্প্রতিক ঘটনাগুলো দেখায় যে, ঈশ্বরের পদক্ষেপ নেওয়ার সময় খুবই নিকটে।—পড়ুন, ২ তীমথিয় ৩:১-৫.

৩. আমাদের কী করা উচিত?

ঈশ্বরের বাক্য বাইবেল থেকে আমাদের তাঁর সম্বন্ধে শেখা উচিত। এটি একজন প্রেমময় পিতার কাছ থেকে আমাদের জন্য একটি চিঠির মতো। এটি আমাদেরকে বলে যে, কীভাবে এখনই এক উত্তম জীবন উপভোগ করা যায় এবং কীভাবে ভবিষ্যতে পৃথিবীতে অনন্তজীবন উপভোগ করা যায়। এটা ঠিক যে, বাইবেল বোঝার ব্যাপারে আপনি যে সাহায্য নিচ্ছেন, সেটা দেখে কেউ কেউ হয়তো পছন্দ না-ও করতে পারে। তবে, আপনি নিশ্চয়ই এই উত্তম ভবিষ্যতের এক অপূর্ব সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইবেন না।—পড়ুন, হিতোপদেশ ২৯:২৫; প্রকাশিত বাক্য ১৪:৬, ৭.

আরও জানুন

বিনা মূল্যে বাইবেল অধ্যয়নের জন্য অনুরোধ করুন

কেন বাইবেল অধ্যয়ন করবেন?

বাইবেল পৃথিবীব্যাপী লক্ষ লক্ষ লোককে জীবনের বড়ো বড়ো প্রশ্নগুলোর উত্তর জানাচ্ছে। আপনি কি তাদের মধ্যে একজন হতে চান?