সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

প্রহরীদুর্গ  |  নং  ১ ২০১৭

 প্রচ্ছদবিষয় | বাইবেল পড়া থেকে যেভাবে উপকার লাভ করা যায়

কেন বাইবেল পড়বেন?

কেন বাইবেল পড়বেন?

“আমি মনে করতাম, বাইবেল বোঝা খুবই কঠিন।”—জুভি

“আমার মনে হতো, বাইবেল পড়া একঘেয়ে একটা বিষয়।”—কুইনি

“বাইবেল এত মোটা একটি বই যে, এটির দিকে তাকালেই আমি পড়ার সমস্ত আগ্রহ হারিয়ে ফেলতাম।”—এজিকিয়েল

আপনার ক্ষেত্রে কি কখনো এমনটা হয়েছে যে, আপনি বাইবেল পড়ার কথা চিন্তা করেছেন, কিন্তু উপরে উল্লেখিত ব্যক্তিদের মতো অনুভূতির কারণে এটি পড়া বাদ দিয়েছেন? অনেকেই বাইবেল পড়ার কথা ভেবে ভয় পায়। কিন্তু, আপনি যদি জানতে পারেন, বাইবেল আপনাকে আরও সুখী ও পরিতৃপ্তিদায়ক জীবন উপভোগ করার জন্য সাহায্য করতে পারে, তা হলে? কিংবা আপনি যদি দেখেন যে, বাইবেল পড়ার এমন কিছু পদ্ধতি রয়েছে, যেগুলো বাইবেল পড়াকে আরও উপভোগ্য করে তোলে? আপনি কি পরীক্ষা করে দেখতে চাইবেন না যে, বাইবেল থেকে আপনি কোন উপকার লাভ করতে পারেন?

মাত্র কয়েক জন ব্যক্তির মন্তব্য লক্ষ করুন, যারা বাইবেল পড়া শুরু করার পর, সেটা থেকে উপকার লাভ করেছে।

এজিকিয়েল, যার বয়স ২০-র কোঠার প্রথম দিকে, বলেন: “আগে আমি এমন একজন চালকের মতো ছিলাম, যিনি কোনো নির্দিষ্ট গন্তব্য ছাড়াই উদ্দেশ্যহীনভাবে গাড়ি চালিয়ে থাকেন। কিন্তু, বাইবেল পড়া আমাকে এক উদ্দেশ্যপূর্ণ জীবন খুঁজে পেতে সাহায্য করেছে। বাইবেলে এমন ব্যাবহারিক উপদেশ রয়েছে, যা দৈনন্দিন জীবনে কাজে লাগানো যায়।”

ফ্রিডা, যার বয়স ২০-র কোঠায়, বলেন: “আমি খুবই বদমেজাজী ছিলাম। কিন্তু, বাইবেল পড়ার মাধ্যমে আমি নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে শিখেছি। এর ফলে, লোকেদের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া আমার জন্য আরও সহজ হয়ে উঠেছে এবং এখন আমার অনেক বন্ধুও রয়েছে।”

ইউনিস নামে একজন মহিলা, যার বয়স ৫০-এর কোঠায়, বাইবেলের বিষয়ে বলেন, “এটি আমাকে আরও উত্তম ব্যক্তি হয়ে উঠতে, আমার খারাপ অভ্যাসগুলো পরিবর্তন করতে সাহায্য করেছে।”

এই পাঠকদের আর সেইসঙ্গে লক্ষ লক্ষ ব্যক্তির মতো আপনিও জানতে পারবেন যে, বাইবেল পড়ার মাধ্যমে আরও উপভোগ্য জীবন লাভ করা যায়। (যিশাইয় ৪৮:১৭, ১৮) অন্যান্য বিষয়ের পাশাপাশি বাইবেল আপনাকে উত্তম সিদ্ধান্ত নিতে, প্রকৃত বন্ধুত্ব গড়ে তুলতে, চাপের সঙ্গে মোকাবিলা করতে এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, ঈশ্বর সম্বন্ধে সত্য জানতে সাহায্য করবে। যেহেতু বাইবেলের উপদেশের উৎস হলেন ঈশ্বর, তাই এই উপদেশ মেনে চললে কখনো অপকার হবে না। ঈশ্বর কখনো খারাপ উপদেশ দেন না।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, শুরু করা। কোন ব্যাবহারিক পরামর্শগুলো মেনে চললে আপনি আরও সহজে এবং উপভোগ্য উপায়ে বাইবেল পড়া শুরু করতে পারেন?