সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

প্রহরীদুর্গ  |  অক্টোবর ২০১৪

 বাইবেল জীবনকে পরিবর্তন করে

আমি বন্দুক ছাড়া কখনোই কোথাও যেতাম না

আমি বন্দুক ছাড়া কখনোই কোথাও যেতাম না
  • জন্ম: ১৯৫৮ সাল

  • দেশ: ইতালি

  • আগে আমি হিংস্র ও সেইসঙ্গে একটা দুর্বৃত্ত দলের সদস্য ছিলাম

আমার অতীত:

আমি রোমের এক শহরতলিতে জন্মগ্রহণ করি এবং সেখানেই বড়ো হয়ে উঠি। সেই শহরে দরিদ্র শ্রমজীবী শ্রেণীর লোকেরা বাস করত আর সেখানে জীবনযাপন সহজ ছিল না। আমি কখনোই আমার মাকে দেখিনি আর বাবার সঙ্গে আমার সম্পর্ক ভালো ছিল না। বড়ো হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমিও শিখে যাই যে, কীভাবে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে টিকে থাকতে হয়।

আমার বয়স যখন দশ বছর, তখন থেকেই আমি চুরি করতে শুরু করি। ১২ বছর বয়সে আমি প্রথম বার ঘর থেকে পালিয়ে যাই। বাবাকে একাধিক বার আমাকে পুলিশের প্রধান কার্যালয় থেকে বাড়ি নিয়ে আসতে হয়। আমি প্রায়ই লোকেদের সঙ্গে ঝগড়া করতাম অর্থাৎ খুব হিংস্র প্রকৃতির ছিলাম এবং সবার ওপর রেগে থাকতাম। ১৪ বছর বয়সে আমি পুরোপুরিভাবে ঘর ছেড়ে চলে যাই। আমি মাদকদ্রব্য গ্রহণ করতে ও রাস্তায় থাকতে শুরু করি। ঘুমানোর কোনো জায়গা না থাকায় আমি কোনো গাড়ির তালা ভেঙে সেখানে ঢুকে ভোর পর্যন্ত ঘুমিয়ে থাকতাম। এরপর আমি জলের খোঁজ করতাম, যাতে হাত-মুখ ধুয়ে নিতে পারি।

চুরি করায় আমি বেশ দক্ষ হয়ে উঠি। ব্যাগ ছিনতাই থেকে শুরু করে আমি রাতে বিভিন্ন অ্যাপার্টমেন্ট এবং বড়ো বড়ো বাড়িতেও চুরি করতে শুরু করি। আমি আমার কাজের জন্য কুখ্যাত হয়ে উঠি এবং শীঘ্র আমাকে একটা কুখ্যাত দুর্বৃত্ত দলে যোগ দেওয়ার জন্য বলা হয়। এর ফলে আমি ব্যাঙ্ক ডাকাতি করার “সুযোগ” পাই। উগ্র মেজাজের কারণে শীঘ্র আমি সেই দলের একজন সম্মাননীয় ব্যক্তি হয়ে উঠি। আমি বন্দুক ছাড়া কখনোই কোথাও যেতাম না; সত্যি বলতে কী, এমনকী ঘুমানোর সময়ও আমি বালিশের নীচে বন্দুক রাখতাম। দৌরাত্ম্য, মাদকদ্রব্য, চুরি, অশ্লীল ভাষা এবং অনৈতিকতা আমার জীবনের অংশ হয়ে উঠেছিল। পুলিশ সবসময় আমাকে খুঁজে বেড়াত। আমাকে বহু বার গ্রেপ্তার করা হয় আর আমাকে অনেক বছর জেলে কাটাতে হয়।

বাইবেল যেভাবে আমার জীবনকে পরিবর্তন করেছে:

একবার জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর আমি আমার মাসিকে দেখতে যাব বলে ঠিক করি। আমি জানতাম না যে, আমার মাসি এবং মাসতুতো ভাই ও বোন যিহোবার সাক্ষি হয়েছে। তারা আমাকে সাক্ষিদের একটা সভাতে আসার আমন্ত্রণ জানায়। কৌতূহলবশত আমি সেখানে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিই। কিংডম হলে আসার পর, আমি দরজার  কাছেই বসতে চাই, যাতে যারা আসা-যাওয়া করছে, তাদের ওপর নজর রাখতে পারি। বলা বাহুল্য, তখনও আমার কাছে বন্দুক ছিল।

সেই সভা আমার জীবনকে পরিবর্তন করে দিয়েছে। এখনও আমার স্মরণে আছে, আমার মনে হচ্ছিল, যেন আমি একটা অন্য গ্রহে রয়েছি। আমাকে লোকেরা আন্তরিকতা সহকারে এবং হাসিখুশিভাবে অভ্যর্থনা জানায়। সেই সাক্ষিদের চোখে-মুখে যে-সদয়ভাব ও আন্তরিকতা ছিল, তা এখনও আমার চোখে ভেসে ওঠে। আমি যে-পরিবেশে থাকতাম, সেটার চেয়ে এটা একেবারে আলাদা ছিল।

আমি সাক্ষিদের সঙ্গে বাইবেল অধ্যয়ন করতে শুরু করি। আমি যতই শিখতে থাকি, ততই আমার কাছে এটা স্পষ্ট হয়ে ওঠে যে, আমাকে আমার জীবনধারা পুরোপুরিভাবে পরিবর্তন করতে হবে। আমি হিতোপদেশ ১৩:২০ পদে পাওয়া পরামর্শ কাজে লাগাই, যেখানে বলা আছে, “জ্ঞানীদের সহচর হও, জ্ঞানী হইবে; কিন্তু যে হীনবুদ্ধিদের বন্ধু, সে ভগ্ন হইবে।” আমি বুঝতে পারি, আমাকে সেই দুর্বৃত্ত দলের সঙ্গ ছাড়তে হবে। তা করা সহজ ছিল না কিন্তু যিহোবার সাহায্যে আমি সফল হই।

জীবনে প্রথম বার আমি নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে শুরু করি

এ ছাড়া, আমি শারীরিকভাবেও নিজেকে শুচি করি। অনেক প্রচেষ্টার পর আমি সিগারেট খাওয়া এবং মাদকদ্রব্য গ্রহণ করা বন্ধ করি। আমি আমার লম্বা চুল কেটে ফেলি, কানের দুল খুলে ফেলি এবং অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করা বন্ধ করে দিই। জীবনে প্রথম বার আমি নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে শুরু করি।

আমার কখনোই পড়তে ও অধ্যয়ন করতে ভালো লাগত না, তাই বাইবেল অধ্যয়ন করার সময় মন স্থির রাখা আমার জন্য সত্যিই খুব কঠিন ছিল। কিন্তু, আমি যখন প্রচেষ্টা করতে শুরু করি, তখন ধীরে ধীরে যিহোবার প্রতি আমার ভালোবাসা গড়ে ওঠে আর আমি আমার মধ্যে কিছু পরিবর্তন লক্ষ করি—আমার বিবেক আমাকে দংশন করতে শুরু করে। আমি প্রায়ই নিজেকে অপরাধী বলে মনে করতাম আর ভাবতাম যে, আমি যে-খারাপ কাজগুলো করেছি, সেগুলোর জন্য যিহোবা হয়তো কখনোই আমাকে ক্ষমা করবেন না। কিন্তু, দায়ূদ গুরুতর পাপ করার পরেও যিহোবা যে তাকে ক্ষমা করে দিয়েছিলেন, তা পড়া সেই মুহূর্তগুলোতে আমাকে অনেক স্বস্তি এনে দিয়েছে।—২ শমূয়েল ১১:১–১২:১৩.

আরেকটা প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল, ঘরে ঘরে প্রচারে গিয়ে অন্যদেরকে আমার বিশ্বাস সম্বন্ধে জানানো। (মথি ২৮:১৯, ২০) আমি সবসময় আতঙ্কে থাকতাম যে, আমার হয়তো এমন কারো সঙ্গে দেখা হবে, যাকে আমি আগে মারধর করেছি কিংবা যার প্রতি অন্যায় করেছি! কিন্তু, ধীরে ধীরে আমি আমার ভয় কাটিয়ে উঠি। আমি আমাদের অপূর্ব স্বর্গীয় পিতা, যিনি প্রচুররূপে ক্ষমা করেন, তাঁর সম্বন্ধে অন্যদের জানতে সাহায্য করায় প্রকৃত পরিতৃপ্তি খুঁজে পেতে শুরু করি।

আমি যেভাবে উপকৃত হয়েছি:

যিহোবা সম্বন্ধে শেখা আমার জীবনকে রক্ষা করেছে! আমার প্রাক্তন বন্ধুবান্ধবের মধ্যে অধিকাংশই হয় মারা গিয়েছে নয়তো জেলে রয়েছে, কিন্তু আমার প্রকৃতই পরিতৃপ্তিদায়ক এক জীবন এবং এমন এক ভবিষ্যৎ রয়েছে, যেটার জন্য আমি অধীরভাবে অপেক্ষা করে আছি। আমি নম্র ও বাধ্য হতে এবং আমার উগ্র মেজাজকে নিয়ন্ত্রণ করতে শিখেছি। এর ফলে, আমি আমার আশেপাশের লোকেদের সঙ্গে আরও উত্তম সম্পর্ক উপভোগ করি। আমি আমার সুন্দরী স্ত্রী কারমেনের সঙ্গে এক সুখী বিবাহিত জীবন উপভোগ করছি। আমরা একসঙ্গে অন্যদেরকে বাইবেল সম্বন্ধে শিখতে সাহায্য করতে পেরে খুব আনন্দিত।

আর হ্যাঁ, এখন আমি সততার সঙ্গে কাজ করি—এখনও মাঝে মাঝে আমাকে ব্যাঙ্কে কাজ করতে হয়, তবে সেখানে ডাকাতি করার পরিবর্তে পরিষ্কারের কাজ করি! ▪ (w১৪-E ০৭/০১)

আরও জানুন

প্রায়ই জিজ্ঞাস্য প্রশ্ন

বাইবেল অধ্যয়ন কী?

আমাদের বিনা মূল্যে বাইবেল অধ্যয়ন কার্যক্রম সম্বন্ধে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর জানুন।