সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

প্রহরীদুর্গ  |  জুলাই ২০১৪

 প্রচ্ছদ বিষয় | ধূমপান সম্বন্ধে ঈশ্বরের দৃষ্টিভঙ্গি

ধূমপান করাকে ঈশ্বর কোন দৃষ্টিতে দেখেন?

ধূমপান করাকে ঈশ্বর কোন দৃষ্টিতে দেখেন?

আগের প্রবন্ধে উল্লেখিত নাওকো ধূমপানের আসক্তি থেকে মুক্ত হওয়ার বিষয়ে বলতে গিয়ে জানান: “ঈশ্বরের গুণাবলী ও তাঁর উদ্দেশ্য সম্বন্ধে সত্য শেখার মাধ্যমে আমি আমার জীবনকে পরিবর্তন করতে পেরেছিলাম।” তিনি যা শিখেছিলেন, তা বাইবেলে পাওয়া যায়। যদিও বাইবেলে তামাকের কোনো উল্লেখ নেই, তবুও এটি আমাদেরকে ধূমপান সম্বন্ধে ঈশ্বরের দৃষ্টিভঙ্গি বুঝতে সাহায্য করে। * বাইবেলের জ্ঞান অনেক ব্যক্তিকে এই ধরনের নেশা কাটিয়ে উঠতে বা বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় উৎসাহ জুগিয়েছে। (২ তীমথিয় ৩:১৬, ১৭) আসুন, আমরা ধূমপানের তিনটে পরিচিত ক্ষতিকর প্রভাব ও বাইবেল সেগুলো সম্বন্ধে কী বলে, তা পরীক্ষা করে দেখি।

ধূমপান আমাদেরকে দাসে পরিণত করে

তামাকের মধ্যে নিকোটিন নামে এক প্রকারের মারাত্মক নেশাকর ওষুধ রয়েছে। এটা উত্তেজনা সৃষ্টি করে ও একইসঙ্গে মানুষকে অবসাদগ্রস্ত করে ফেলে। ধূমপান খুব দ্রুত ও বার বার মস্তিষ্কে নিকোটিন পৌঁছে দেয়। যেহেতু প্রত্যেকটা টানে একটা নির্দিষ্ট মাত্রায় নিকোটিন যায়, তাই যে-ব্যক্তি দিনে এক প্যাকেট সিগারেট খান, তিনি প্রায় ২০০ মাত্রার নিকোটিন নেন, যা যেকোনো মাদকদ্রব্যের চেয়ে অনেক বেশি। এভাবে বেশি মাত্রায় নিকোটিন নেওয়ার ফলে তিনি এতে আসক্ত হয়ে পড়েন। একবার আসক্ত হয়ে পড়লে, যদি তার নিকোটিনের চাহিদা পূর্ণ না হয়, তবে তিনি ধূমপান করার জন্য ছটফট করতে থাকেন।

“যাহার আজ্ঞা মান, তোমরা তাহারই দাস।” —রোমীয় ৬:১৬

আপনি যদি তামাকের প্রতি আসক্ত থাকেন, তাহলে আপনি কি প্রকৃতই ঈশ্বরের বাধ্য হতে পারেন?

বাইবেল এই বিষয়ে আমাদের সঠিক দৃষ্টিভঙ্গি গড়ে তুলতে সাহায্য করে। এটি বলে: “তোমরা কি জান না যে, আজ্ঞা পালনার্থে যাহার নিকটে দাসরূপে আপনাদিগকে সমর্পণ কর, যাহার আজ্ঞা মান, তোমরা তাহারই দাস?” (রোমীয় ৬:১৬) যখন একজন ব্যক্তি তামাকজাত দ্রব্যের প্রতি তার আসক্তির বিষয় নিয়ে চিন্তা করেন আর সেইমতো কাজ করেন, তখন শীঘ্রই তিনি সেই ক্ষতিকর অভ্যাসের দাসে পরিণত হন। কিন্তু ঈশ্বর, যাঁর নাম যিহোবা, তিনি চান যেন আমরা সেই অভ্যাসগুলো থেকে দুরে থাকি, যেগুলো আমাদের শরীর ও সেইসঙ্গে আমাদের আত্মা বা আমাদের প্রবল মানসিক আকাঙ্ক্ষাকে দূষিত করে। (যাত্রাপুস্তক ৩:১৫; ২ করিন্থীয় ৭:১) তাই, যিহোবার প্রতি একজন ব্যক্তির কৃতজ্ঞতাবোধ ও সম্মান যখন বৃদ্ধি পায়, তখন তিনি উপলব্ধি করেন যে, যিহোবাই তার সর্বোত্তমটুকু পাওয়ার যোগ্য। কিন্তু সেই ব্যক্তি যদি কোনো মারাত্মক নেশার দাস হয়ে পড়েন, তবে তিনি যিহোবাকে তার সর্বোত্তমটুকু দিতে পারবেন না। এই উপলব্ধিবোধই সেই ব্যক্তিকে ক্ষতিকর আকাঙ্ক্ষার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য শক্তি প্রদান করে।

জার্মানিতে বসবাসরত ওলাফ নামে একজন ব্যক্তি ১২ বছর বয়স থেকে সিগারেট খেতে শুরু করেন। অবশেষে তিনি তার দীর্ঘ ১৬ বছরের আসক্তি কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হন। তিনি বলেন: ‘প্রথম বার সিগারেটে টান দিয়ে সেটাকে আমার ততটা ক্ষতিকর বলে মনে হয়নি। কিন্তু, বছর গড়িয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেই সিগারেটই আমাকে ধবংসের দিকে টেনে নিয়ে গিয়েছিল। একবার যখন আমার সিগারেট শেষ হয়ে গিয়েছিল, তখন আমার মাথা এতটাই খারাপ হয়ে গিয়েছিল যে, আমি অ্যাশট্রে থেকে সিগারেটের টুকরো জড়ো করি আর সেগুলো থেকে মসলা বের করে নিই। এরপর একটা ছেঁড়া খবরের কাগজে সেই মসলাগুলো মুড়িয়ে একটা সিগারেট বানিয়ে ফেলি। সেই কথাগুলো চিন্তা করলে এখনও আমার লজ্জা লাগে।’ কীভাবে তিনি ধূমপানের এই বদভ্যাস ছাড়তে পেরেছিলেন? তিনি বলেন: ‘এর পেছনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কারণ ছিল যিহোবাকে খুশি  করার আকাঙ্ক্ষা। মানবজাতির প্রতি তিনি যে-ভালোবাসা দেখিয়েছেন আর সেইসঙ্গে যে-আশা দিয়েছেন, তা আমাকে চিরকালের জন্য এই নেশা ত্যাগ করার শক্তি জুগিয়েছিল।’

ধূমপান আমাদের শরীরের ক্ষতি করে

তামাকের মানচিত্র (ইংরেজি) নামক বইটি বলে: “সিগারেট খাওয়া যে আমাদের শরীরের প্রায় প্রত্যেকটা অঙ্গের ক্ষতি করে এবং অসুস্থতা ও মৃত্যুর হার বাড়ায়, তা বিজ্ঞানসম্মতভাবে প্রমাণিত।” সবাই জানে যে, ধূমপান ক্যান্সার, হৃদরোগ এবং ফুসফুসের রোগের জন্য দায়ী, যেগুলো সংক্রামক নয়। কিন্তু, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)-র মতে ধূমপান যক্ষ্মার মতো সংক্রামক রোগের জন্যেও দায়ী।

“তোমার সমস্ত অন্তঃকরণ, তোমার সমস্ত প্রাণ ও তোমার সমস্ত মন দিয়া তোমার ঈশ্বর প্রভুকে প্রেম করিবে।”—মথি ২২:৩৭

আপনি যদি আপনার ঈশ্বরদত্ত দেহকে মন্দ অভ্যাসের দ্বারা কলুষিত করেন, তাহলে আপনি কি দেখাচ্ছেন যে, ঈশ্বরের প্রতি আপনার প্রেম ও সম্মান রয়েছে?

যিহোবা ঈশ্বর তাঁর বাক্য বাইবেলের মাধ্যমে আমাদের শিক্ষা দেন, যেন আমরা আমাদের জীবন, আমাদের দেহ আর আমাদের কর্মক্ষমতা সম্বন্ধে সঠিক দৃষ্টিভঙ্গি বজায় রাখি। তাঁর পুত্র যিশু এই বিষয়ের ওপর আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করিয়ে বলেন: “তোমার সমস্ত অন্তঃকরণ, তোমার সমস্ত প্রাণ ও তোমার সমস্ত মন দিয়া তোমার ঈশ্বর প্রভুকে প্রেম করিবে।” (মথি ২২:৩৭) তাই, ঈশ্বর চান যেন আমরা আমাদের জীবন এবং আমাদের শরীরকে ভালোভাবে ও সম্মানের সঙ্গে ব্যবহার করি। যিহোবা ও তাঁর প্রতিজ্ঞা সম্বন্ধে আমরা যত বেশি জানব, তিনি আমাদের জন্য যা-কিছু করেছেন, সেগুলোকে আমরা তত বেশি করে ভালোবাসব ও মূল্যবান বলে মনে করব। আর এটাই আমাদেরকে যেকোনো কিছু থেকে নিজেদের আলাদা রাখতে প্রেরণা দেবে, যা আমাদের দেহকে দূষিত করে।

জয়বন্ত নামে ভারতের একজন ডাক্তার ৩৮ বছর ধরে ধূমপান করতেন। তিনি বলেন: “আমি বিভিন্ন চিকিৎসা বিষয়ক পত্রপত্রিকায় ধূমপানের বিপদ সম্বন্ধে পড়েছিলাম। আমি জানতাম যে এটা ঠিক নয় আর তাই আমি আমার রোগীদের ধূমপান ছাড়ার পরামর্শ দিতাম। কিন্তু পাঁচ-ছয় বার চেষ্টা করা সত্ত্বেও আমি নিজে এটা ছাড়তে পারিনি।” শেষপর্যন্ত কীভাবে তিনি এই অভ্যাস ছেড়েছিলেন? তিনি স্বীকার করেন: “বাইবেল অধ্যয়ন করার ফলে আমি এই অভ্যাস ছাড়তে পেরেছিলাম। যিহোবাকে খুশি করার আকাঙ্ক্ষাই আমাকে খুব তাড়াতাড়ি এই অভ্যাস ত্যাগ করতে সাহায্য করেছিল।”

ধূমপান অন্যদের ক্ষতি করে

ধূমপান করলে আর সেইসঙ্গে তামাক জ্বালালে যে-ধোঁযা উৎপন্ন হয়, তা বিষাক্ত। সরাসরি ধূমপান না করলেও পরোক্ষভাবে এই ধোঁযা নেওয়ার ফলে অনেকে ক্যান্সার ও অন্যান্য রোগের দ্বারা আক্রান্ত হয় এবং এভাবে প্রতি বছর ৬,০০,০০০ ব্যক্তি মারা যায়, যাদের মধ্যে বেশিরভাগই হল মহিলা ও শিশু। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)-র রিপোর্ট সাবধান করে: “অন্যদের ধূমপানের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত লোকেদের জন্য কোনো নিরাপদ জায়গা নেই।”

“তোমার প্রতিবাসীকে আপনার মত প্রেম করিবে।” —মথি ২২:৩৯

আপনার ধূমপানের ফলে, প্রতিবেশী ও পরিবারের সদস্যদের যদি ক্ষতি হয়, তাহলে আপনার কি মনে হয় যে, আপনি সত্যিই তাদের ভালোবাসেন?

 যিশুর কথা অনুযায়ী ঈশ্বরকে প্রেম করার ঠিক পরের আজ্ঞাটাই হল প্রতিবেশীর প্রতি প্রেম আর সেই প্রতিবেশীদের মধ্যে রয়েছে আমাদের পরিবারের সদস্য, বন্ধুবান্ধব এবং সেই ব্যক্তিরা, যারা আমাদের আশেপাশে থাকে। তিনি বলেছিলেন: “তোমার প্রতিবাসীকে আপনার মত প্রেম করিবে।” (মথি ২২:৩৯) আমাদের আশেপাশের লোকেদের ক্ষতি করে, এমন কোনো অভ্যাসে আমরা যদি জড়িত থাকি, তবে আমরা প্রতিবেশীর প্রতি প্রেম দেখাতে ব্যর্থ হচ্ছি। একমাত্র প্রকৃত প্রেমই আমাদেরকে বাইবেলের এই উপদেশ মেনে চলতে প্রেরণা দেয়, যা বলে: “কেহই স্বার্থ চেষ্টা না করুক, বরং প্রত্যেক জন পরের মঙ্গল চেষ্টা করুক।”—১ করিন্থীয় ১০:২৪.

আর্মেনিয়ায় বসবাসরত আর্মেন নিজের পরিস্থিতির কথা মনে করে বলেন: “আমার পরিবারের সদস্যরা আমাকে অনেক করে বলত, যেন আমি ধূমপান করা ছেড়ে দিই কারণ এটা তাদের ক্ষতি করছিল। কিন্তু এটা যে তাদের ক্ষতি করে, তা আমি কিছুতেই মেনে নিতে চাইতাম না।” কোন বিষয়টা তার দৃষ্টিভঙ্গিকে পরিবর্তন করতে সাহায্য করেছিল, তা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে তিনি বলেন: “বাইবেলের জ্ঞান আর সেইসঙ্গে যিহোবার প্রতি ভালোবাসা আমাকে ধূমপান ছাড়তে সাহায্য করেছিল এবং আমি মেনে নিয়েছিলাম যে, এটা শুধু আমারই নয় বরং আমার আশেপাশে থাকা ব্যক্তিদেরও ক্ষতি করে।”

ধূমপান বন্ধ করা কতই-না উপকারজনক!

বাইবেলের জ্ঞান ওলাফ, জয়বন্ত এবং আর্মেনকে সেই বদভ্যাস কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করেছিল, যা তাদের ও সেইসঙ্গে অন্যদেরও ক্ষতি করত। ধূমপান যে ক্ষতিকর, শুধু এই জ্ঞানই তাদের সেই অভ্যাস কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করেনি। তারা সফল হয়েছিলেন কারণ তারা যিহোবাকে ভালোবেসেছিলেন আর তাঁকে খুশি করতে চেয়েছিলেন। ১ যোহন ৫:৩ পদ প্রেমের মুখ্য ভূমিকা সম্বন্ধে প্রকাশ করে, যা বলে: “কেননা ঈশ্বরের প্রতি প্রেম এই, যেন আমরা তাঁহার আজ্ঞা সকল পালন করি; আর তাঁহার আজ্ঞা সকল দুর্ব্বহ নয়।” অবশ্য এটা ঠিক যে, বাইবেলের নীতিগুলো পালন করা সবসময় সহজ নয় কিন্তু ঈশ্বরের প্রতি গভীর প্রেমের বশবর্তী হয়ে একজন ব্যক্তি যখন কাজ করেন, তখন বাধ্য হওয়া তার কাছে দুর্বহ বা বোঝা স্বরূপ হয় না।

পৃথিবীব্যাপী শিক্ষামূলক অভিযানের মাধ্যমে যিহোবা ঈশ্বর আজ লক্ষ লক্ষ ব্যক্তিকে সাহায্য করছেন, যাতে তারা তামাকের দাসত্ব থেকে মুক্ত হয়ে বেরিয়ে আসতে পারে। (১ তীমথিয় ২:৩, ৪) খুব শীঘ্রই যিহোবা তাঁর রাজ্য অর্থাৎ তাঁর পুত্র যিশু খ্রিস্টের স্বর্গীয় সরকারের মাধ্যমে লোভী বাণিজ্যিক ব্যবস্থাকে নির্মূল করবেন, যা লক্ষ লক্ষ ব্যক্তিকে তামাকের দাস করে রেখেছে। তিনি আমাদের উপকারের জন্যই এই ধূমপানের মহামারীকে দূর করবেন আর বাধ্য মানবজাতিকে সিদ্ধ দেহ ও সিদ্ধ মন গড়ে তুলতে সাহায্য করবেন।—যিশাইয় ৩৩:২৪; প্রকাশিত বাক্য ১৯:১১, ১৫.

আপনি যদি ধূমপান ছাড়ার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করছেন, তাহলে হাল ছেড়ে দেবেন না। আপনি যদি যিহোবার প্রতি ভালোবাসা গড়ে তোলেন আর ধূমপান সম্পর্কে তাঁর দৃষ্টিভঙ্গি মেনে নেন, তাহলে তা আপনাকে ধূমপান ছাড়ার জন্য প্রেরণা দেবে। যিহোবার সাক্ষিরা আপনাকে ব্যাবহারিক পদক্ষেপগুলো দেখিয়ে ব্যক্তিগতভাবে সাহায্য করতে পেরে খুশি হবে, যাতে আপনি বাইবেলের নীতিগুলো শেখেন আর আপনার জীবনে তা প্রয়োগ করতে পারেন। আপনি যদি তামাকের দাসত্ব থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য যিহোবার কাছে সাহায্য চান, তাহলে আপনি এই আস্থা রাখতে পারেন যে, তিনি তা করার জন্য আপনাকে প্রয়োজনীয় শক্তি ও সামর্থ্য দেবেন।—ফিলিপীয় ৪:১৩. ▪ (w১৪-E ০৬/০১)

^ অনু. 3 ধূমপান বলতে এখানে বিড়ি, সিগারেট, চুরুট, পাইপ, অথবা হুঁকোর সাহায্যে তামাকের ধোঁযা সেবন করাকে বোঝায়। কিন্তু, এখানে যে-নীতিগুলো আলোচনা করা হয়েছে, সেগুলো একইভাবে তামাক চিবানো বা খৈনী খাওয়া, নস্যি টানা এবং নিকোটিনযুক্ত ইলেকট্রনিক সিগারেট ব্যবহার করা ইত্যাদির ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য।