সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

প্রহরীদুর্গ  |  এপ্রিল ২০১৪

 বাইবেল জীবনকে পরিবর্তন করে

এক পরমদেশ পৃথিবীর প্রতিজ্ঞা আমার জীবনকে পালটে দিয়েছে!

এক পরমদেশ পৃথিবীর প্রতিজ্ঞা আমার জীবনকে পালটে দিয়েছে!
  • জন্ম: ১৯৭৪ সাল

  • দেশ: লাটভিয়া

  • আগে আমি ঝুঁকিপূর্ণ মোটরসাইকেল প্রতিযোগিতায় অংশ নিতাম

আমার অতীত:

আমি লাটভিয়ার রাজধানী রিগাতে জন্মগ্রহণ করি। আমার দিদি ও আমি মায়ের কাছে মানুষ হয়েছি। যদিও আমার মা ক্যাথলিক ছিল, তবুও আমরা কেবল ধর্মীয় ছুটির দিনগুলোতেই গির্জায় যেতাম। যদিও আমি সবসময় উচ্চতর এক শক্তির ওপর বিশ্বাস করতাম কিন্তু একজন অল্পবয়সি হিসেবে আমি বিভিন্ন বিষয়ের দ্বারা বিক্ষিপ্ত হয়ে গিয়েছিলাম।

আমি যখন বড়ো হতে থাকি, তখন আমার মা লক্ষ করে যে, আমার প্রবণতা হচ্ছে বিভিন্ন জিনিস খুলে সেগুলো আবার জোড়া লাগানো। যেহেতু ঘরে এমন অনেক জিনিস ছিল, যেগুলো খুলে ফেলা যেত, তাই মা আমাকে একা ঘরে রেখে যেতে ভয় পেত। এই কারণে মা আমাকে ধাতুর তৈরি এক ধরনের খেলনা দিয়েছিল, যেটা আমি খুলে জোড়া লাগাতে পছন্দ করতাম। এটার পাশাপাশি আমি আরেকটা বিষয়েও অত্যন্ত আগ্রহী ছিলাম আর সেটা হল মোটরসাইকেল চালানো। জ্যাল্টা মপাটস্‌ (দ্যা গোল্ডেন মপেড) নামে এক মোটরসাইকেল প্রতিযোগিতায় মা আমার নাম লেখায়। শুরুর দিকে মপেড (এক ধরনের ছোটো মোটরসাইকেল) দিয়ে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করলেও পরবর্তী সময়ে আমি মোটরসাইকেল ব্যবহার করতাম।

আমি দ্রুতগতিসম্পন্ন এবং মারাত্মক এই খেলা খুব তাড়াতাড়ি শিখে ফেলি আর তাতে দক্ষ হয়ে উঠি। আমি বিভিন্ন ধরনের মোটরসাইকেল প্রতিযোগিতায় তিন বার লাটভিয়ান চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম এবং দু-বার বাল্টিক স্টেটস্‌ চ্যাম্পিয়ানশিপ জিতেছিলাম।

বাইবেল যেভাবে আমার জীবনকে পরিবর্তন করেছে:

আমি যখন সাফল্যের চূড়ান্ত পর্যায়ে ছিলাম, তখন আমার প্রেমিকা ইভিয়ার সঙ্গে (যাকে পরে আমি বিয়ে করেছিলাম) যিহোবার সাক্ষিদের পরিচয় হয়। সে তাদের কিছু সাহিত্য পায়, যেগুলোর মধ্যে বাইবেল অধ্যয়নের জন্য অনুরোধ করার কুপন ছিল। সে একটা কুপন পূরণ করে সেটা পাঠিয়ে দেয়। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই দু-জন সাক্ষি বোন তার সঙ্গে দেখা করতে আসে এবং সে তাদের সঙ্গে বাইবেল অধ্যয়ন শুরু করে। এতে আমার কোনো আপত্তি ছিল না কিন্তু একইসঙ্গে সেই সময়ে ধর্মের ব্যাপারে আমার কোনো আগ্রহও ছিল না।

পরবর্তী সময়ে, সাক্ষিরা আমাকে ইভিয়ার সঙ্গে বাইবেল অধ্যয়নে বসে শোনার জন্য আমন্ত্রণ জানায়। আমি এই আমন্ত্রণ গ্রহণ করি এবং আমার তা শুনতে ভালো  লাগত। বিশেষ করে যে-বিষয়টা আমার হৃদয়কে স্পর্শ করেছিল তা হল, এক পরমদেশ পৃথিবী সম্বন্ধে বাইবেলের প্রতিজ্ঞা। উদাহরণ স্বরূপ, তারা আমাকে গীতসংহিতা ৩৭:১০, ১১ পদ দেখায়, যেখানে লেখা আছে: “ক্ষণকাল, পরে দুষ্ট লোক আর নাই, তুমি তাহার স্থান তত্ত্ব করিবে, কিন্তু সে আর নাই। কিন্তু মৃদুশীলেরা দেশের অধিকারী হইবে, এবং শান্তির বাহুল্যে আমোদ করিবে।” এই প্রতিজ্ঞা সত্যিই আমার হৃদয় স্পর্শ করেছিল।

আধ্যাত্মিক বিষয়গুলোর প্রতি আমার আগ্রহ ক্রমাগত বৃদ্ধি পেতে থাকে। ধর্মের মধ্যে যে কত মিথ্যা বিষয় রয়েছে, আমি তা বুঝতে শুরু করি। অন্যদিকে, বাইবেলের শিক্ষা আমাকে প্রভাবিত করেছিল কারণ সেগুলো ছিল যুক্তিযুক্ত ও স্পষ্ট।

বাইবেল অধ্যয়ন চালিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমি জানতে পারি যে, যিহোবা জীবনকে উচ্চমূল্য দিয়ে থাকেন এবং এটা তাঁর কাছে খুবই মূল্যবান। (গীতসংহিতা ৩৬:৯) এটা আমার প্রতিযোগিতার ওপর প্রভাব ফেলে অর্থাৎ আমি আমার জীবনকে আর ঝুঁকির মুখে ফেলতে চাইনি। এর পরিবর্তে, আমি আমার জীবনকে যিহোবার গৌরবার্থে ব্যবহার করতে চেয়েছিলাম। তাই, মোটরসাইকেল প্রতিযোগিতার ফলে যে-খ্যাতি ও প্রশংসা আসে এবং রোমাঞ্চ অনুভব করা যায়, সেটা আমার কাছে আর গুরুত্বপূর্ণ ছিল না।

আমি জানতে পেরেছিলাম যে, জীবনদাতার প্রতি আমার একটা কর্তব্য রয়েছে

১৯৯৬ সালে আমি এস্টোনিয়ার তালিনে যিহোবার সাক্ষিদের এক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে যোগ দিই আর এটা সেই স্টেডিয়ামের কাছেই অবস্থিত, যেখানে আমি প্রায়ই মোটরসাইকেল প্রতিযোগিতায় অংশ নিতাম। সম্মেলনে আমি লক্ষ করেছিলাম যে, বিভিন্ন দেশ থেকে আসা লোকেরা একত্রে এবং শান্তিতে মেলামেশা করছে। উদাহরণ স্বরূপ, একজন সাক্ষি বোন যখন তার ব্যাগ হারিয়ে ফেলেছিলেন, তখন আমার মনে হয়েছিল যে, তিনি আর কখনোই সেটা ফিরে পাবেন না। কিন্তু, কিছুক্ষণের মধ্যেই একজন সাক্ষি বোন সেই ব্যাগটা খুঁজে পেয়ে তাকে তা ফিরিয়ে দেন আর সেই ব্যাগ থেকে একটা জিনিসও হারিয়ে যায়নি। আমি খুবই অবাক হয়ে গিয়েছিলাম! তখন আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে, সাক্ষিরা সত্যিই বাইবেলের উচ্চমান অনুযায়ী জীবনযাপন করে। ইভিয়া এবং আমি ক্রমাগতভাবে আমাদের অধ্যয়নে উন্নতি করতে থাকি এবং ১৯৯৭ সালে যিহোবার সাক্ষি হিসেবে বাপ্তিস্ম নিই।

আমি যেভাবে উপকৃত হয়েছি:

বেপরোয়াভাবে এবং দ্রুতগতিতে মোটরসাইকেল চালানোর কারণে আমার কিছু বন্ধু মারা গিয়েছিল। বাইবেল অধ্যয়ন করার ফলে আমি জানতে পেরেছিলাম যে, আমাদের জীবনদাতা যিহোবার প্রতি আমার একটা কর্তব্য রয়েছে। সম্ভবত এই বোধগম্যতাই আমার জীবনকে রক্ষা করেছিল।

আমি এবং ইভিয়া চার বছর ধরে রিগায় অবস্থিত যিহোবার সাক্ষিদের শাখা অফিসে পূর্ণসময়ের পরিচারক হিসেবে সেবা করার বিশেষ সুযোগ পাই। এখন আমরা আনন্দের সঙ্গে আমাদের মেয়ে আলিসাকে মানুষ করছি আর তাকে যিহোবার প্রতি ভালোবাসা গড়ে তুলতে সাহায্য করছি। এ ছাড়া, আমি প্রতি সপ্তাহে এক দিন অনুবাদ অফিসে গিয়ে গাড়ি সারানোর এবং বিভিন্ন ভাঙা জিনিস মেরামত করার সুযোগ উপভোগ করছি। ছোটোবেলা থেকে আমি যে-দক্ষতাগুলো অর্জন করেছি, সেগুলো ভালোভাবে ব্যবহার করতে পেরে আমি সত্যিই খুব আনন্দিত! হ্যাঁ, আমি এখনও বিভিন্ন জিনিস খুলে সেগুলো আবার জোড়া লাগাই।

আমার পরিবারের সঙ্গে একত্রে একমাত্র সত্য ঈশ্বর সম্বন্ধে সাক্ষ্য দেওয়ার বিশেষ সুযোগকে আমি মূল্যবান বলে মনে করি আর এর সবই সম্ভব হয়েছে কারণ আমি বাইবেল থেকে সত্য জানতে পেরেছি। সত্যিই, এক পরমদেশ পৃথিবীর প্রতিজ্ঞা আমার জীবনকে পালটে দিয়েছে! ▪ (w14-E 02/01)