সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

প্রহরীদুর্গ (অধ্যয়ন সংস্করণ)  |  সেপ্টেম্বর ২০১৫

আপনি কি খ্রিস্টের মতো হওয়ার চেষ্টা করছেন?

আপনি কি খ্রিস্টের মতো হওয়ার চেষ্টা করছেন?

আমরা খ্রীষ্টের পূর্ণতার আকারের পরিমাণ পর্য্যন্ত, অগ্রসর হই।’—ইফি. ৪:১৩.

গান সংখ্যা: ১১, ৪২

১, ২. প্রত্যেক খ্রিস্টানের লক্ষ্য কী? একটা উদাহরণ দিন।

একজন গৃহিণী যদি বাজারে গিয়ে তরতাজা ফল বাছাই করতে চান, তাহলে তিনি কোন ধরনের ফল খোঁজেন? সম্ভবত, তিনি সবচেয়ে বড়ো অথবা সবচেয়ে সস্তা ফল বাছাই করেন না। এর পরিবর্তে, তিনি এমন ফল খোঁজেন, যেটা থেকে মিষ্টি গন্ধ বের হয় এবং যেটা তরতাজা ও সঙ্গেসঙ্গে খাওয়ার উপযোগী। তিনি চান যেন ফলটা পাকা অর্থাৎ পরিপক্ব হয়।

একজন ব্যক্তি যিহোবা সম্বন্ধে শেখার এবং বাপ্তিস্মের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর, ঈশ্বরের সঙ্গে তার সম্পর্ক ক্রমাগত বৃদ্ধি পায়। তার লক্ষ্য হল একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান হয়ে ওঠা। এই পরিপক্বতা বলতে বয়স বৃদ্ধি পাওয়া বোঝায় না। এর অর্থ হচ্ছে আধ্যাত্মিক বৃদ্ধি অর্থাৎ যিহোবার সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বজায় রাখা। প্রেরিত পৌল চেয়েছিলেন যেন ইফিষের খ্রিস্টানরা পরিপক্ব হয়ে ওঠেন। তিনি তাদেরকে বিশ্বাসে একতাবদ্ধ হতে এবং যিশু সম্বন্ধে ক্রমাগত শিক্ষা নিতে উৎসাহিত করেছিলেন, যেন তারা “সিদ্ধ পুরুষের [“পরিণত মানুষের,” ইজি-টু-রিড ভারশন] অবস্থা পর্য্যন্ত, খ্রীষ্টের পূর্ণতার আকারের পরিমাণ পর্য্যন্ত, অগ্রসর” হতে বা খ্রিস্টের মতো হয়ে উঠতে পারে।—ইফি. ৪:১৩.

৩. কীভাবে ইফিষীয় মণ্ডলীর সঙ্গে বর্তমান সময়ের যিহোবার লোকেদের তুলনা করা যায়?

পৌল ইফিষীয় মণ্ডলীর উদ্দেশে চিঠি লেখার বেশ কয়েক বছর আগে  থেকেই, সেই মণ্ডলী প্রতিষ্ঠিত ছিল। সেই মণ্ডলীতে ইতিমধ্যেই অভিজ্ঞ এবং পরিপক্ব খ্রিস্টানরা ছিলেন। তা সত্ত্বেও, সেখানে এমন কেউ কেউ ছিলেন, যাদের যিহোবার সঙ্গে সম্পর্ক আরও দৃঢ় করার প্রয়োজন ছিল। একইভাবে, বর্তমানে অনেক ভাই ও বোন দীর্ঘসময় ধরে যিহোবার সেবা করে এসেছেন এবং তারা পরিপক্ব খ্রিস্টান হয়ে উঠেছেন। কিন্তু, মণ্ডলীর কেউ কেউ সেই একই অবস্থানে নেই। উদাহরণ স্বরূপ, প্রতি বছর হাজার হাজার ব্যক্তি বাপ্তাইজিত হয় আর তাই সবসময় মণ্ডলীতে এমন ব্যক্তিরা থাকেন, যাদের ধীরে ধীরে পরিপক্ব হতে হয়। আপনার সম্বন্ধে কী বলা যায়?—কল. ২:৬, ৭.

কীভাবে একজন খ্রিস্টান বৃদ্ধি পেতে পারেন?

৪, ৫. কীভাবে পরিপক্ব খ্রিস্টানরা একে অন্যের চেয়ে আলাদা কিন্তু তাদের সকলের মধ্যে কোন বিষয়ে মিল রয়েছে? (শুরুতে দেওয়া ছবিটা দেখুন।)

আপনি যখন বাজারে গিয়ে পাকা ফলমূলের দিকে লক্ষ করেন, তখন আপনি এটা বুঝতে পারেন, প্রতিটা ফল হুবহু একই আকারের নয়। কিন্তু, সব ফলেরই সাধারণ কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যেগুলোর মাধ্যমে ফলগুলোকে পাকা বলে শনাক্ত করা যায়। পরিপক্ব খ্রিস্টানদের বেলায়ও একই বিষয় সত্য। তারা সকলে হুবহু একরকম নন। তারা ভিন্ন ভিন্ন দেশ ও পটভূমি থেকে এসেছেন। তাদের মধ্যে বয়সের পার্থক্য রয়েছে এবং তাদের পছন্দ-অপছন্দ আলাদা। তা সত্ত্বেও, সকল পরিপক্ব খ্রিস্টানের মধ্যে সাধারণ কিছু গুণ রয়েছে, যেগুলোর মাধ্যমে তাদের পরিপক্ব হিসেবে শনাক্ত করা যায়। সেই গুণগুলোর মধ্যে কয়েকটা কী?

একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান যিশুকে অনুকরণ করেন এবং “তাঁহার পদচিহ্নের” অনুগমন করেন। (১ পিতর ২:২১) যিশু বলেছিলেন, একজন ব্যক্তির জন্য সমস্ত অন্তকরণ, প্রাণ ও মন দিয়ে যিহোবাকে ভালোবাসা এবং প্রতিবেশীকে নিজের মতো ভালোবাসা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। (মথি ২২:৩৭-৩৯) এই পরামর্শের বাধ্য হওয়ার জন্য একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান কঠোর প্রচেষ্টা করেন। তার জীবনধারা প্রমাণ দেয়, যিহোবার সঙ্গে তার সম্পর্ক এবং অন্যদের প্রতি গভীর প্রেম দেখানোই হচ্ছে তার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

বয়স্ক খ্রিস্টানরা, অপেক্ষাকৃত কমবয়সি নেতৃত্বদানকারী ব্যক্তিদের সমর্থন করার মাধ্যমে যিশুর নম্রতা অনুকরণ করতে পারেন (৬ অনুচ্ছেদ দেখুন)

৬, ৭. (ক) একজন পরিপক্ব খ্রিস্টানের আর কোন গুণাবলি রয়েছে? (খ) আমরা নিজেদের কোন প্রশ্ন জিজ্ঞেস করতে পারি?

একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান যে-সমস্ত গুণ প্রকাশ করে থাকেন, প্রেম হচ্ছে সেগুলোর মধ্যে কেবল একটা। (গালা. ৫:২২, ২৩) এ ছাড়া, তিনি মৃদুতা, ইন্দ্রিয়দমন এবং দীর্ঘসহিষ্ণুতা বা ধৈর্য প্রকাশ করে থাকেন। এইসমস্ত গুণ তাকে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেও বিরক্ত না হতে এবং হতাশাজনক পরিস্থিতিতে আশা না হারিয়ে ফেলতে সাহায্য করতে পারে। ব্যক্তিগত অধ্যয়নের সময় একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান সবসময় বাইবেলের সেই নীতিগুলো খোঁজার চেষ্টা করেন, যেগুলো তাকে কোনটা সঠিক ও কোনটা ভুল, তা বুঝতে সাহায্য করবে। এরপর, তিনি তার বাইবেল প্রশিক্ষিত বিবেক ব্যবহার করে বিজ্ঞ সিদ্ধান্ত নিতে সমর্থ হবেন। একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান হলেন নম্র ব্যক্তি আর তাই তিনি এটা বিশ্বাস করেন, তার নিজস্ব দৃষ্টিভঙ্গির চেয়ে যিহোবার নির্দেশনা ও মান সবসময়ই আরও ভালো। * এ ছাড়া, তিনি উদ্যোগের সঙ্গে সুসমাচার প্রচার করেন এবং মণ্ডলীর একতা বজায় রাখতে সাহায্য করার জন্য যথাসাধ্য করেন।

আমরা যত বছর ধরেই যিহোবার সেবা করি না কেন, আমরা প্রত্যেকে নিজেকে জিজ্ঞেস করতে পারি: ‘যিশুকে আরও পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে অনুকরণ করার জন্য আমি আর কোন পরিবর্তন করতে পারি? অন্য আর কোন ক্ষেত্রে আমি উন্নতি করতে পারি?’

“কঠিন খাদ্য . . . সিদ্ধবয়স্কদেরই জন্য”

৮. বাইবেল সম্বন্ধে যিশুর কেমন বোধগম্যতা ছিল?

শাস্ত্র সম্বন্ধে যিশু খ্রিস্টের অনেক ভালো বোধগম্যতা ছিল। এমনকী মাত্র ১২ বছর বয়সেই তিনি মন্দিরের গুরুদের সঙ্গে শাস্ত্র ব্যবহার  করে কথা বলেছিলেন। ‘যাহারা তাঁহার কথা শুনিতেছিল, তাহারা সকলে তাঁহার বুদ্ধি ও উত্তরে অতিশয় আশ্চর্য্য জ্ঞান করিয়াছিল।’ (লূক ২:৪৬, ৪৭) এ ছাড়া, তিনি প্রচার করার সময় তাঁর শত্রুদের নিরুত্তর করার জন্য দক্ষতার সঙ্গে ঈশ্বরের বাক্য ব্যবহার করেছিলেন।—মথি ২২:৪১-৪৬.

৯. (ক) একজন পরিপক্ব খ্রিস্টানের অধ্যয়ন তালিকা কেমন? (খ) কেন আমরা বাইবেল অধ্যয়ন করি?

পরিপক্ব খ্রিস্টান হয়ে উঠতে চান এমন একজন ব্যক্তি, যিশুর উদাহরণ অনুকরণ করেন এবং যতটা সম্ভব বাইবেল বোঝার চেষ্টা করেন। তিনি নিয়মিতভাবে শাস্ত্রের গভীর সত্যগুলো অনুসন্ধান করেন কারণ তিনি জানেন, “কঠিন খাদ্য . . . সিদ্ধবয়স্কদেরই জন্য” বা পরিপক্ব ব্যক্তিদের জন্য। (ইব্রীয় ৫:১৪) একজন পরিপক্ব ব্যক্তি বাইবেল থেকে ‘তত্ত্বজ্ঞান’ বা সঠিক জ্ঞান লাভ করতে চান। (ইফি. ৪:১৩) তাই নিজেকে জিজ্ঞেস করুন: ‘আমি কি প্রতিদিন বাইবেল পড়ি? আমার কি ব্যক্তিগত অধ্যয়নের তালিকা রয়েছে? আমি কি প্রতি সপ্তাহে পারিবারিক উপাসনা করি?’ আপনি যখন বাইবেল অধ্যয়ন করেন, তখন সেই নীতিগুলো খুঁজে বের করুন, যেগুলো আপনাকে যিহোবা কীভাবে চিন্তা করেন অথবা কেমন অনুভব করেন, তা বুঝতে সাহায্য করতে পারে। এরপর, সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এই নীতিগুলো কাজে লাগান। তা করার মাধ্যমে আপনি যিহোবার আরও নিকটবর্তী হতে পারবেন।

১০. ঈশ্বরের পরামর্শ ও নীতি সম্বন্ধে একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান কেমন অনুভব করেন?

১০ একজন পরিপক্ব খ্রিস্টানকে, বাইবেল কী বলে সেই বিষয়ে জ্ঞান নেওয়ার চেয়ে আরও বেশি কিছু করতে হবে। তাকে ঈশ্বরের পরামর্শ ও নীতি ভালোবাসতে হবে। তারপর, তিনি নিজের ইচ্ছার পরিবর্তে যিহোবার ইচ্ছা পালন করার জন্য তার আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করার মাধ্যমে সেই ভালোবাসা দেখাবেন। তিনি এমনকী তার জীবনধারা, চিন্তাভাবনা ও বিভিন্ন কাজে পরিবর্তন করবেন। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, তিনি যিশুকে অনুকরণ করবেন এবং নতুন মনুষ্য বা ব্যক্তিত্ব গড়ে তুলবেন, যা  “সত্যের ধার্ম্মিকতায় ও সাধুতায় ঈশ্বরের সাদৃশ্যে সৃষ্ট হইয়াছে।” (পড়ুন, ইফিষীয় ৪:২২-২৪.) এটা মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে, ঈশ্বর বাইবেল লেখকদের নির্দেশনা দেওয়ার জন্য তাঁর পবিত্র আত্মা ব্যবহার করেছিলেন। তাই, একজন খ্রিস্টান যখন বাইবেল অধ্যয়ন করেন, তখন ঈশ্বরের পবিত্র আত্মা তাকে জ্ঞানে ও প্রেমে বৃদ্ধি পেতে এবং যিহোবার সঙ্গে তার সম্পর্ক আরও দৃঢ় করতে সাহায্য করে।

একতা বৃদ্ধি করুন

১১. পৃথিবীতে থাকাকালীন যিশুর কী অভিজ্ঞতা হয়েছিল?

১১ যিশু একজন সিদ্ধ মানুষ ছিলেন। কিন্তু, পৃথিবীতে থাকাকালীন যিশুর চারপাশে অসিদ্ধ মানুষ ছিল। তাঁর বাবা-মা এবং ভাই-বোন সকলে অসিদ্ধ ছিলেন। এমনকী যিশুর ঘনিষ্ঠ অনুসারীরাও অহংকার এবং স্বার্থপরতার মতো বৈশিষ্ট্য প্রকাশ করেছিলেন। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, তাঁর মৃত্যুর আগের রাতে তাঁর শিষ্যদের মধ্যে এই বিষয় নিয়ে বিবাদ হয়েছিল, “তাঁহাদের মধ্যে কে শ্রেষ্ঠ বলিয়া গণ্য।” (লূক ২২:২৪) যিশু জানতেন, তাঁর অনুসারীদের অসিদ্ধ চিন্তাভাবনা থাকা সত্ত্বেও, তারা শীঘ্র পরিপক্ব খ্রিস্টান হয়ে উঠবেন এবং একতাবদ্ধ মণ্ডলী গঠন করবেন। সেই একই রাতে, যিশু তাদের জন্য প্রার্থনা করেছিলেন, যেন তারা একতাবদ্ধ হন। তিনি তাঁর স্বর্গীয় পিতার কাছে এই প্রার্থনা করেছিলেন: “পিতঃ, যেমন তুমি আমাতে ও আমি তোমাতে, তেমনি . . . যেন তাহারা এক হয়, যেমন আমরা এক।”—যোহন ১৭:২১, ২২.

১২, ১৩. (ক) খ্রিস্টান হিসেবে আমাদের লক্ষ্য কী? (খ) কীভাবে একজন ভাই একতা বৃদ্ধি করতে শিখেছিলেন?

১২ একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান মণ্ডলীতে একতা বৃদ্ধি করেন। (পড়ুন, ইফিষীয় ৪:১-৬, ১৫, ১৬.) খ্রিস্টান হিসেবে আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে ‘যথাযথ সংলগ্ন ও সংযুক্ত হওয়া’ অর্থাৎ একতাবদ্ধভাবে কাজ করা। এই ধরনের একতা বজায় রাখার জন্য খ্রিস্টানদের নম্র হতে হবে। তাই, অন্যদের অসিদ্ধতার মুখোমুখি হলেও একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান মণ্ডলীর একতা দৃঢ় রাখার জন্য কঠোর পরিশ্রম করেন। অতএব নিজেকে এই প্রশ্ন জিজ্ঞেস করুন: ‘একজন ভাই অথবা বোন কোনো ভুল করলে আমি কেমন প্রতিক্রিয়া দেখাই? কেউ আমাকে আঘাত দিলে আমি কেমন অনুভব করি? আমি কি সেই ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দিই? না কি আমি সেই সম্পর্ক জোড়া লাগানোর চেষ্টা করি?’ একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান অন্যদের জন্য সমস্যা তৈরি করার পরিবর্তে সমস্যা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করেন।

১৩ ইউয়ে নামে একজন ভাইয়ের উদাহরণ বিবেচনা করুন। অতীতে, তিনি ভাই-বোনদের অসিদ্ধতার কারণে বিরক্ত হতেন। তারপর, তিনি বাইবেল এবং শাস্ত্রের প্রতি অন্তর্দৃষ্টি (ইংরেজি) বই ব্যবহার করে দায়ূদের জীবন সম্বন্ধে অধ্যয়ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। কেন তিনি দায়ূদকে বেছে নিয়েছিলেন? কারণ ঈশ্বরের দাসদের মধ্যে কারো কারো সঙ্গে দায়ূদেরও সমস্যা হয়েছিল। উদাহরণ স্বরূপ, রাজা শৌল দায়ূদকে হত্যা করতে চেয়েছিলেন, কিছু লোক দায়ূদকে পাথর মারতে চেয়েছিল আর এমনকী দায়ূদের স্ত্রীও তাকে উপহাস করেছিলেন। (১ শমূ. ১৯:৯-১১; ৩০:১-৬; ২ শমূ. ৬:১৪-২২) কিন্তু, অন্যেরা দায়ূদের প্রতি যা-ই করুক না কেন, তিনি যিহোবাকে ভালোবেসেছিলেন এবং তাঁর উপর নির্ভরতা বজায় রেখেছিলেন। এ ছাড়া, দায়ূদ অন্যদের করুণা দেখিয়েছিলেন। ইউয়ে স্বীকার করেন, তাকেও একই বিষয় করতে হয়েছিল। বাইবেল অধ্যয়ন করে তিনি বুঝতে পেরেছিলেন, ভাই-বোনদের অসিদ্ধতাকে তিনি যেভাবে দেখেন, তাতে পরিবর্তন করা প্রয়োজন। তাকে অন্যদের ভুলগুলো মনের মধ্যে পুষে না রেখে বরং মণ্ডলীর একতা বৃদ্ধিতে অবদান রাখতে হয়েছিল। আপনারও কি একই লক্ষ্য রয়েছে?

ঈশ্বরের ইচ্ছা পালন করছে এমন ব্যক্তিদের মধ্য থেকে বন্ধুবান্ধব বাছাই করুন

১৪. কীভাবে যিশু তাঁর বন্ধুদের বাছাই করেছিলেন?

১৪ যিশু খ্রিস্ট লোকেদের সঙ্গে বন্ধুত্বপরায়ণ আচরণ দেখিয়েছিলেন। নারী-পুরুষ, যুবক-বৃদ্ধ আর  এমনকী শিশুরাও যিশুর সঙ্গে স্বচ্ছন্দবোধ করত। কিন্তু, তিনি সতর্কতার সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের বাছাই করেছিলেন। তিনি তাঁর প্রেরিতদের বলেছিলেন: “আমি তোমাদিগকে যাহা কিছু আজ্ঞা দিতেছি, তাহা যদি পালন কর, তবে তোমরা আমার বন্ধু।” (যোহন ১৫:১৪) যিশু সেই ব্যক্তিদের মধ্য থেকে তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের বাছাই করেছিলেন, যারা অনুগতভাবে তাঁকে অনুসরণ করেছিলেন এবং যিহোবাকে ভালোবেসেছিলেন ও যিহোবার সেবা করেছিলেন। আপনি কি সেই ব্যক্তিদের মধ্য থেকে আপনার বন্ধুবান্ধব বাছাই করেন, যারা সর্বান্তঃকরণে যিহোবাকে ভালোবাসে? কেন তা করা গুরুত্বপূর্ণ?

১৫. কীভাবে অল্পবয়সিরা পরিপক্ব খ্রিস্টানদের সঙ্গে বন্ধুত্ব করে উপকার লাভ করতে পারে?

১৫ অধিকাংশ ফল রোদের তাপে সবচেয়ে ভালোভাবে পাকে। একইভাবে, আমাদের ভাই ও বোনদের আন্তরিক ভালোবাসা আপনাকে একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান হয়ে ওঠার জন্য সাহায্য করতে পারে। তুমি কি একজন অল্পবয়সি? তুমি জীবনে কী করবে, সেই বিষয়ে তুমি কি সিদ্ধান্ত নেওয়ার চেষ্টা করছ? যদি তা-ই হয়, তাহলে বন্ধুবান্ধব হিসেবে এমন ব্যক্তিদের বাছাই করা তোমার জন্য বিজ্ঞতার কাজ হবে, যারা বেশ কিছুটা সময় ধরে যিহোবার সেবা করছেন এবং মণ্ডলীর একতা বৃদ্ধি করছেন। তারা হয়তো জীবনে বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন এবং যিহোবার সেবা করার সময় বিভিন্ন প্রতিদ্বন্দ্বিতা সহ্য করেছেন। তারা তোমাকে জীবনের সর্বোত্তম পথ বাছাই করার ক্ষেত্রে সাহায্য করতে পারেন। তুমি যখন তাদের সঙ্গে সময় কাটাবে, তখন তারা তোমাকে বিভিন্ন বিজ্ঞতাপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে এবং একজন খ্রিস্টান হিসেবে পরিপক্ব হতে সাহায্য করতে পারবেন।—পড়ুন, ইব্রীয় ৫:১৪.

১৬. অল্পবয়সি একজন বোনকে মণ্ডলীর বয়স্ক ব্যক্তিরা কীভাবে সাহায্য করেছিলেন?

১৬ হেলগা স্মরণ করে বলেন, কলেজের শেষ বছরে, তার বেশিরভাগ সহপাঠী তাদের ভবিষ্যৎ লক্ষ্য নিয়ে কথা বলছিল। তাদের মধ্যে অনেকে এক সফল কেরিয়ার গড়ে তোলার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে চেয়েছিল। কিন্তু, হেলগা মণ্ডলীতে তার পরিপক্ব বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে কথা বলেছিলেন। তিনি বলেন: “তাদের মধ্যে অনেকে আমার চেয়ে বয়সে বড়ো ছিলেন আর তারা আমাকে অনেক সাহায্য করেছিলেন। তারা আমাকে পূর্ণসময়ের পরিচর্যা গ্রহণ করার জন্য উৎসাহিত করেছিলেন। তারপর, আমি পাঁচ বছর অগ্রগামী সেবা করতে পেরেছিলাম। অনেক বছর কেটে যাওয়ার পর, আমি এখনও এই বিষয়টা চিন্তা করে আনন্দ পাই, যৌবনকালে আমার বেশিরভাগ সময় আমি যিহোবার সেবায় ব্যয় করতে পেরেছিলাম। আর এই কারণে আমার কোনো আপশোস নেই।”

১৭, ১৮. কীভাবে আমরা সর্বোত্তম উপায়ে যিহোবাকে সেবা করতে পারি?

১৭ আমরা যখন যিশুকে অনুকরণ করব, তখন আমরা ধীরে ধীরে পরিপক্ব খ্রিস্টান হয়ে উঠব। আমরা যিহোবার আরও নিকটবর্তী হব এবং তাঁকে সেবা করার জন্য আমাদের আকাঙ্ক্ষা আরও বৃদ্ধি পাবে। একজন ব্যক্তি যখন পরিপক্ব হয়ে ওঠেন, তখন তিনি যিহোবাকে সর্বোত্তম উপায়ে সেবা করেন। যিশু তাঁর অনুসারীদের উৎসাহিত করেছিলেন: “তোমাদের দীপ্তি মনুষ্যদের সাক্ষাতে উজ্জ্বল হউক, যেন তাহারা তোমাদের সৎক্রিয়া দেখিয়া তোমাদের স্বর্গস্থ পিতার গৌরব করে।”—মথি ৫:১৬.

১৮ এই প্রবন্ধে আমরা শিখেছি, একজন পরিপক্ব খ্রিস্টান কীভাবে মণ্ডলীতে জোরালো প্রভাব ফেলতে পারেন। এ ছাড়া, আমরা এটাও শিখেছি, একজন খ্রিস্টান তার বিবেককে যেভাবে ব্যবহার করেন, সেটার মাধ্যমে তিনি নিজের পরিপক্বতা প্রকাশ করেন। কীভাবে আমাদের বিবেক বিভিন্ন বিজ্ঞতাপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে আমাদের সাহায্য করতে পারে? আর কীভাবে আমরা অন্যদের বিবেকের প্রতি সম্মান দেখাতে পারি? আমরা পরের প্রবন্ধে এই প্রশ্নগুলোর উত্তর আলোচনা করব।

^ অনু. 6 উদাহরণ স্বরূপ, বয়স্ক অভিজ্ঞ ভাইদেরকে হয়তো তাদের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াতে এবং তাদের চেয়ে অপেক্ষাকৃত কমবয়সি যে-ভাইদের সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, সেই ভাইদের সমর্থন করতে বলা হতে পারে।