সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

প্রহরীদুর্গ (অধ্যয়ন সংস্করণ)  |  এপ্রিল ২০১৫

কোনো ছিন্ন বৃক্ষ কি আবার পল্লবিত হতে পারে?

কোনো ছিন্ন বৃক্ষ কি আবার পল্লবিত হতে পারে?

লিবাননের বিশাল এরস বৃক্ষের সঙ্গে তুলনা করলে, একটা প্যাঁচানো ও গাঁটযুক্ত জিত বৃক্ষকে খুব একটা আকর্ষণীয় বলে মনে না-ও হতে পারে। কিন্তু, প্রতিকূল পরিবেশে বেঁচে থাকার এক উল্লেখযোগ্য ক্ষমতা জিত বৃক্ষের রয়েছে। কোনো কোনো বৃক্ষ ১,০০০ বছর ধরে বেঁচে রয়েছে বলে মনে করা হয়। একটা জিত বৃক্ষের বিস্তৃত শিকড় থাকে। এমনকী বৃক্ষের কাণ্ড নষ্ট হয়ে যাওয়ার পরও এই শিকড় জিত বৃক্ষকে পুনরুজ্জীবিত করে তুলতে পারে। যতক্ষণ পর্যন্ত শিকড় বেঁচে থাকবে, এই বৃক্ষ আবার পল্লবিত হবে।

কুলপতি ইয়োব এই বিষয়ে নিশ্চিত ছিলেন, এমনকী তিনি যদি মারাও যান, তিনি পুনর্জীবিত হবেন। (ইয়োব ১৪:১৩-১৫) তাকে পুনরুত্থিত করার ক্ষমতা যে ঈশ্বরের আছে, সেই বিষয়ে নিজের আস্থা প্রকাশ করার জন্য ইয়োব উদাহরণ হিসেবে একটা বৃক্ষ—সম্ভবত একটা জিত বৃক্ষ—ব্যবহার করেছিলেন। ইয়োব বলেছিলেন, “বৃক্ষের আশা আছে, ছিন্ন হইলে তাহা পুনর্ব্বার পল্লবিত হইবে।” প্রচণ্ড খরার পর যখন বৃষ্টি শুরু হয়, তখন একটা জিত বৃক্ষের শুষ্ক গুঁড়ি এর শিকড় থেকে পল্লবিত হয়ে জীবন ফিরে পেতে পারে, “নবরোপিত বৃক্ষের ন্যায় শাখাবিশিষ্ট” হতে পারে।ইয়োব ১৪:৭-৯.

ঠিক যেমন একজন রোপণকারী কোনো ছিন্ন বা কেটে ফেলা জিত বৃক্ষের শিকড় থেকে আবারও সেই বৃক্ষকে পল্লবিত হতে দেখার জন্য আকাঙ্ক্ষা করেন, তেমনই যিহোবা ঈশ্বর তাঁর মৃত দাসদের ও সেইসঙ্গে অন্য অনেক ব্যক্তিকে জীবন ফিরে পেতে দেখার জন্য আকাঙ্ক্ষা করেন। (মথি ২২:৩১, ৩২; যোহন ৫:২৮, ২৯; প্রেরিত ২৪:১৫) মৃত ব্যক্তিদের অভ্যর্থনা জানানো এবং তাদের আবারও পরিতৃপ্তিদায়ক জীবন উপভোগ করতে দেখা কতই-না আনন্দদায়ক হবে!