সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

Select language বাংলা

আপনি কি জানতেন?

আপনি কি জানতেন?

বাইবেলের সময়ে একজন ব্যক্তি যে স্বেচ্ছায় নিজের বস্ত্র ছিঁড়ে ফেলতেন, তার অর্থ কী ছিল?

শাস্ত্র এমন কিছু পরিস্থিতি সম্বন্ধে বর্ণনা করে, যে-পরিস্থিতিতে লোকেরা নিজেদের বস্ত্র ছিঁড়ে ফেলেছিল। এই ধরনের কাজ বর্তমান সময়ের পাঠকদের কাছে অস্বাভাবিক বলে মনে হতে পারে, কিন্তু যিহুদিদের মধ্যে এটা হতাশা, দুঃখ, অপমান, রাগ অথবা শোকের কারণে প্রবল আবেগ প্রকাশ করার এক উপায় ছিল।

উদাহরণ স্বরূপ, রূবেণ সেই সময়ে ‘আপন বস্ত্র চিরিয়াছিলেন,’ যখন তিনি বুঝতে পেরেছিলেন যে, তার ভাই যোষেফকে উদ্ধার করার বিষয়ে তার পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়ে গিয়েছে, কারণ যোষেফকে দাস হিসেবে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে। তাদের বাবা যাকোব যখন মনে করেছিলেন, কোনো হিংস্র পশু যোষেফকে খেয়ে ফেলেছে, তখন তিনি ‘আপন বস্ত্র চিরিয়াছিলেন।’ (আদি. ৩৭:১৮-৩৫) ইয়োবকে যখন বলা হয়েছিল তার সমস্ত সন্তান মারা গিয়েছে, তখন তিনি ‘আপন বস্ত্র ছিঁড়িয়াছিলেন।’ (ইয়োব ১:১৮-২০) যে-বার্তাবাহক মহাযাজক এলির কাছে এই খবর জানাতে এসেছিলেন যে, ইস্রায়েলীয়রা যুদ্ধে পরাজিত হয়েছে, এলির দুই পুত্রকে হত্যা করা হয়েছে এবং নিয়ম-সিন্দুক শত্রুহস্তগত হয়েছে, সেই বার্তাবাহকের “বস্ত্র ছিন্ন . . . ছিল।” (১ শমূ. ৪:১২-১৭) যোশিয়ের সামনে ব্যবস্থাপুস্তক পাঠ করার সময়, তিনি যখন তা শুনেছিলেন এবং তার লোকেদের অপরাধ বুঝতে পেরেছিলেন, তখন তিনি ‘আপনার বস্ত্র ছিঁড়িয়াছিলেন।’—২ রাজা. ২২:৮-১৩.

যিশুর বিচারের সময়ে, মহাযাজক কায়াফা এমন কথা শুনে ‘আপন বস্ত্র ছিঁড়িয়াছিলেন,’ যেটাকে তিনি ভুলভাবে ঈশ্বরনিন্দা বলে মনে করেছিলেন। (মথি ২৬:৫৯-৬৬) রব্বিদের দ্বারা স্থাপিত পরম্পরাগত রীতি অনুযায়ী, কোনো ব্যক্তি যদি ঐশিক নামের নিন্দা শুনতে পেত, তাহলে সেই ব্যক্তিকে অবশ্যই তার বস্ত্র ছিঁড়তে হতো। কিন্তু যিরূশালেম মন্দির ধবংস হওয়ার পরে রব্বিদের আরেকটা আইন বলে “এখন কেউ যদি ঐশিক নামের নিন্দা শুনতে পায়, তাহলে তাকে আর নিজের বস্ত্র ছিঁড়তে হবে না, কারণ তা করলে একজনের বস্ত্র একসময় ন্যাকড়ায় পরিণত হবে।”

অবশ্য, একজন ব্যক্তির শোক যদি অকৃত্রিম না হতো, তাহলে ঈশ্বরের চোখে সেই ব্যক্তির বস্ত্র ছেঁড়ার কোনো মূল্যই থাকত না। তাই ঈশ্বর তার লোকেদের বলেছিলেন, যেন তারা ‘আপন আপন বস্ত্র না ছিঁড়িয়া অন্তঃকরণ চিরে, এবং আপনাদের ঈশ্বর সদাপ্রভুর কাছে ফিরিয়া আইসে।’—যোয়েল ২:১৩.