সরাসরি বিষয়বস্তুতে যান

সরাসরি দ্বিতীয় মেনুতে যান

সরাসরি বিষয়সূচিতে যান

যিহোবার সাক্ষিরা

বাংলা

প্রহরীদুর্গ (অধ্যয়ন সংস্করণ) জুলাই ২০১৬

এই সংখ্যায় ২০১৬ সালের আগস্ট মাসের ২৯ থেকে সেপ্টেম্বর মাসের ২৫ তারিখের জন্য অধ্যয়ন প্রবন্ধ রয়েছে।

তারা নিজেদেরকে স্বেচ্ছায় বিলিয়ে দিয়েছিলেন—ঘানায়

যেখানে রাজ্যের সুসমাচার প্রচারকদের প্রয়োজন সেখানে গিয়ে সেবা করার বিষয়টা যারা বাছাই করে, তাদের অনেক প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখোমুখি হতে হয়। তবে তারা অনেক আশীর্বাদও লাভ করে।

রাজ্যের বিষয়ে চেষ্টা করুন, বস্তুগত বিষয়ে নয়

কেন আমাদের বস্তুগত বিষয় লাভের আকাঙ্ক্ষাকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে, সেই বিষয়ে যিশু ব্যাখ্যা করেছিলেন।

কেন আমাদের ‘জাগিয়া থাকিতে’ হবে?

আমরা যদি সতর্ক না থাকি, তা হলে তিনটে নেতিবাচক প্রভাব আমাদের জেগে থাকার ক্ষেত্রে বাধা দিতে পারে।

“ভয় করিও না, আমি তোমার সাহায্য করিব”

উদ্‌বিগ্নতা ও সংকটের সময়ে যিহোবা একজন বিশ্বস্ত বন্ধু হিসেবে প্রমাণিত হয়েছেন।

আমরা ঈশ্বরের অনুগ্রহ লাভ করে কৃতজ্ঞ

মানবজাতির প্রতি ঈশ্বরের অনুগ্রহের সর্বমহৎ প্রকাশ কী?

অনুগ্রহের সুসমাচার ছড়িয়ে দিন

কীভাবে ‘রাজ্যের সুসমাচার’ ঈশ্বরের অনুগ্রহ সম্বন্ধে তুলে ধরে?

পাঠকদের কাছ থেকে প্রশ্ন

যিহিষ্কেল ৩৭ অধ্যায়ে দুটো কাষ্ঠ একীভূত হয়ে একটা কাষ্ঠে পরিণত হওয়ার বিষয়ে বর্ণনা করা আছে। এর অর্থ কী?